মেইন ম্যেনু

এক যুগ পর মা-বাবার কাছে ফিরে এল লিপা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে এক যুগ পর মা-বাবার কাছে ফিরে এল লিপা আক্তার (১৮) নামে এক তরুণী।

রোববার রাতে ঢাকার শ্যামলীর একটি বাসায় ১২ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া লিপার সন্ধান পাওয়া যায়। লিপা নেত্রকোনা সদর উপজেলার আমতলা ইউনিয়নের শিবপ্রসাদপুর গ্রামের কাসেম আলীর মেয়ে।

সম্প্রতি ফেসবুক নেত্রবার্তা পেজে লিপার হারিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে লেখালেখি শুরু হয়। পরে নেত্রবার্তা পেজের এক পাঠক লেখাটি পড়ে মেয়েটি ঢাকায় অবস্থান করছে বলে পেজ কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। পরে নেত্রবার্তার একটি দল রোববার রাতে লিপার পরিবারকে নিয়ে শ্যামলীর ওই বাসায় যান। দীর্ঘ ১২ বছর পর লিপা তার পরিবারকে দেখে আনন্দে আত্মহারা হয়ে মা-বাবাকে জড়িয়ে ধরেন।

লিপা জানান, ১২ বছর আগে সে ঢাকায় একটি বাসা থেকে পথ ভুলে হারিয়ে যায়। পরে অপর এক বাসার কাজের মহিলা তাকে মিরপুরে একটি বাসায় কাজে দেয়। সেখানে দুই বছর কাজ করার পর বাড়ির মালিকের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সেখান থেকে বের হয়ে কাজ নেয় শ্যামলীর এই বাসায়। তারা তাকে অত্যাচার করেনি, তবে বাড়ির কারো সঙ্গে যোগাযোগ করতে দেয়নি।

লিপার মা হাজেরা খাতুন বলেন, ‘আমি মনে করছিলাম আমার মেয়ে হয়তো বেঁচে নেই। আপনারা আমার মেয়েকে ফিরিয়ে দিয়েছেন, এই জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করি।’

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে ঢাকার মধুবাগের একটি বাসায় ৬ বছরের শিশু লিপা আক্তারকে গৃহপরিচারিকার কাজে দেয় বাবা-মা। পরে ওই বাসা থেকে লিপা হারিয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই