মেইন ম্যেনু

এখনই অবসরে যাচ্ছেন না আফ্রিদি

পাকিস্তান ক্রিকেটের এই মহাতারকার অবসর নিয়ে অনেকদিন ধরেই ক্রীড়াঙ্গনে আলোচনার ঝড় বইছে। কিন্তু এখনই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের কোন পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়ে দিলেন আফ্রিদি।

সে কারণেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের হয়ে বিদায়ী ম্যাচ খেলার ‘গুজবও’ আপাতত থামিয়ে দিয়েছেন তিনি। ভবিষ্যতই বলে দেবে ক্যারিয়ার কখন থামানো উচিৎ বলে মনে করছেন তিনি। তাই তার অভিজ্ঞতা ও ক্রিকেটের প্রতি নিষ্ঠার কারণেই ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর বিষয়টি আপাতত সামনে আনার কারণ নেই।

পেশোয়ারে গণমাধ্যমের সামনে এই বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে আফ্রিদি বলেছেন, “পাকিস্তানের হয়ে আমি ইতোমধ্যেই ২০ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলে ফেলেছি, পিসিবির জন্য নয়। ম্যাচের জন্য আমি কখনই কারো উপর নির্ভরশীল নই। যে ধরনের সহযোগিতা ও ভালবাসা আমি আমার শুভাকাঙ্খী ও সমর্থকদের কাছ থেকে পেয়েছি সেটাই আমাকে যথেষ্ট দিয়েছে। ”

চলতি বছর এপ্রিলে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ভরাডুবির পর অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়া আফ্রিদিকে নিয়ে গুজব ছিল- হয়তোবা অধিনায়কত্বের সাথে সাথে ক্রিকেটটাকেও বিদায় জানাতে যাচ্ছেন। সে কারণে পাকিস্তানের হয়ে শেষ ম্যাচটি খেলার সুযোগের অপেক্ষায় রয়েছেন, এমন গুজবে সড়ব হয়ে ওঠে আফ্রিদির সমালোচকরা। প্রাথমিক ভাবে আফ্রিদি নিজেও অবশ্য সেই ধরনের ইঙ্গিতই দিয়েছিলেন।

কিন্তু গত অক্টোবরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সংযুক্ত আরব আমিরাতে টি-টোয়েন্টি সিরিজে পিসিবির পক্ষ থেকে সমর্থন পেয়ে আপাতত সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন। আফ্রিদি আরো জানিয়েছেন, প্রতিনিয়ত তিনি ক্রিকেটটাকে উপভোগ করছেন এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আরো বেশী সময় দেবার চেষ্টা করছেন।

তিনি বলেন, “আমি মনে করিনা আমার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গেছে। আমি নিজের খেলা বেশ উপভোগ করছি এবং সর্বোচ্চ পর্যায়ে আরো কিছুদিন খেলা চালিয়ে যেতে চাই। পাকিস্তানের হয়ে দলে সুযোগ পাবার বিষয়টি নির্বাচকদের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। ”

এদিকে পিসিবি উর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাজাম শেঠী স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন আফ্রিদির সাথে বোর্ডের কোন বিরোধ নেই। পাকিস্তান ক্রিকেটে তার অবদানের কথা অপকটেই স্বীকার করেছেন শেঠী। তিনি আরো জানিয়েছেন, সময় হলে অবশ্যই আফ্রিদিকে বর্ণাঢ্য একটি বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই