মেইন ম্যেনু

এটাই নাকি এখন সবচেয়ে স্মার্ট হোটেল! জানেন কি রয়েছে এর ভিতর?

থাকা-খাওয়া সবটাই রাজকীয়। কমফর্ট লেভেলও হাই। এই হোটেলের ব্যবস্থাপনা এতই টিপটপ, যে ট্যুরিস্টরাও এককথায় স্পিচলেস। তবে আহমেদাবাদের এই স্মার্ট হোটেলের চমক অন্য জায়গায়। যা জেনে, নির্ঘাত চোখ কপালে উঠবে আপনারও। কী ভাবছেন? ফাইভ স্টার, সেভেন স্টার, লাক্সারি হোটেল! ভাবতে ক্ষতি নেই। চোখে যা দেখা যাচ্ছে, তাতে এই ভাবনাই নর্মাল। কিন্তু অ্যাবনর্মাল

ঠেকবে যদি আপনি জানেন, আসলে এ কিসসা একদম আলাদা। ইট-পাথর-সিমেন্টের প্রোডাক্ট নয় এই হোটেল। এ জিনিস তৈরি, বাতিল হয়ে যাওয়া শিপিং কন্টেনার থেকে। তাতেই রং চড়িয়ে, সাজিয়ে-গুছিয়ে তৈরি এক-একটা স্পেশাল লাক্সারি হোটেল। যেখানে স্বাচ্ছন্দ্যের কোনও খামতি নেই।

এই ভাবনার মূলে রয়েছে, আহমেদাবাদের সংস্থা হাইরাইজ হসপিটালিটি। আর পরিষেবার নাম দেওয়া হয়েছে বিটল স্মার্ট’ওটেলস। দেশের যে কোনও জায়গায় ৯০ দিনের মধ্যে পৌঁছে যেতে পারে এই স্মার্ট হোটেল। শুধু এমন সুপার লাক্সারি বেডরুম, ওয়াশ রুমই নয়, হল-রেস্টুরেন্টও থাকছে ভিতরেই। ২০১৮-র মধ্যে গোটা দেশে এমন ২০০০ হোটেল রুম ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সংস্থার কর্তাদের। তাহলে কী ভাবছেন? বুকিং করে ফেলবেন নাকি এখনই!-জিনিউজ






মন্তব্য চালু নেই