মেইন ম্যেনু

এটিএম বুথ থেকে টাকা নয়, বের হবে পানি !

সবাই জানেন, এটিএম বুথের বোতাম টিপলেই টাকা বের হয়। তবে এবার টাকা নয়, বের হবে পানি। স্কুলে বসানো হয়েছে এটিএম মেশিন! ‘আয়রন আর্সেনিক রিমুভাল ট্রিটমেন্ট মেশিন’ বা এটিএম বসাচ্ছে।

ছাত্রছাত্রীদের বিশুদ্ধ পানি খাওয়ানোর জন্য এই ব্যবস্থা বলে জানিয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবার ইতিমধ্যে রাজ্যের বিভিন্ন জেলার স্কুলে এই মেশিন বসানোর কাজ চলছে৷ মূলত আর্সেনিকপ্রবণ এলাকাগুলির স্কুলেই এই মেশিন বসানো হচ্ছে।

উত্তর ২৪ পরগনা আর্সেনিকপ্রবণ এলাকা হিসাবে চিহ্নিত। বনগাঁ, বাগদা, হাবড়া, সন্দেশখালি, গাইঘাটা-সহ জেলার বিভিন্ন ব্লকের ৬৮টি স্কুলে এটিএম বসানো হয়েছে। মেশিন বসানোর কাজ চলছে ১৩৮টি স্কুলে।

প্রথম ধাপে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্কুলগুলিতে এই মেশিন বসানো হয়েছে। আগামিদিনে প্রাইমারি স্কুল, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রেও এই মেশিন বসানো হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।

কীভাবে জল পরিশোধিত করা হবে? প্রশাসনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, টিউবওয়েলের থেকে পাইপের সাহায্যে জল স্কুলের ছাদে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ২০০০ লিটার ট্যাঙ্কে জল মজুত রাখা হচ্ছে। সেই ট্যাঙ্ক থেকে পাইপের সাহায্যে জল আসছে এটিএমে।

তিনটি ধাপে জল পরিশোধিত করে মেশিনের মধ্যেই ৫০০ থেকে ১০০০ লিটার জল রিজার্ভ রাখা হচ্ছে। ছাত্রছাত্রীরা মেশিন টিপলেই জল পাবে৷ তবে একবারে এক লিটার পানীয় জল পাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে জল অপচয় হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

আগামিদিনে এই জলের মেশিন সাধারণের জন্য আনার পরিকল্পনা রয়েছে প্রশাসনের। জেলা পরিষদের জনস্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ জ্যোতি চক্রবর্তী বলেন, স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা যাতে পরিস্রুত পানীয় জল পান করতে পারে, তার জন্যই এই উদ্যোগ। আর্সেনিকযুক্ত জল ছাত্রছাত্রীদের পক্ষে ক্ষতিকারক বলেই স্কুলে এই মেশিন বসানো হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই