মেইন ম্যেনু

এপ্রিলেই মুক্তি পাচ্ছে দীঘির নতুন সিনেমা

‘বাবা জানো, আমাদের একটা ময়না পাখি আছে না? সে আজকে আমার নাম ধরে ডেকেছে…’ গ্রামীণ ফোনের এ বিজ্ঞাপন দিয়েই খ্যাতির শিখরে উঠে আসেন ছোট্ট একটি মেয়ে দীঘি।

তারকা দম্পতি সুব্রত ও দোয়েলের ঘরে জন্ম নেয়া দীঘি রাতারাতিই পেয়ে যান তারকা-খ্যাতি। এরপর একের পর এক চলচ্চিত্রে তিনি অভিনয় করেন। পেয়েছেন জাতীয় পুরস্কারও। বর্তমানে যার জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। এদেশের অগণিত মানুষের কাছে তার রয়েছে একটা স্বতন্ত্র গ্রহণযোগ্যতা। অনেকেই মুখিয়ে থাকেন, চলচ্চিত্রে আবার কবে দেখা যাবে দীঘিকে?

মাঝে একবার শোনা গিয়েছিল শাকিব খানের সাথে স্ক্রিন শেয়ার করবেন তিনি। কিন্তু সেখবর পরে গুজবেই শেষ হয়েছে। ফিরেন নি তিনি আর চলচ্চিত্রে। তোর মা এক সময়কার সাড়া জাগানো চিত্র-নায়িকা দোয়েলের মৃত্যুর পর থেকেই তিনি চলচ্চিত্র থেকে দূরে রয়েছেন।

বর্তমানে তার ব্যস্ততা পড়া-লেখা নিয়েই। তার বাবা সুব্রতও চাচ্ছেন, দীঘি আগে পড়াশোনা শেষ করুক। এরপর না হয় আবার অভিনয়ে ফিরবেন। দীঘিরও চাওয়া, পড়াশোনা শেষ করে দেশ-সেরা নায়িকা হয়েই তিনি পর্দায় উপস্থিত হবেন।

এদিকে দীঘি ভক্তদের জন্য সুখবর হচ্ছে, দীঘিকে অল্প কিছুদিনের মধ্যে আবারও পর্দায় দেখা যাবে নতুন একটি ছবিতে। দেশ প্রেম নিয়ে নির্মিত এ ছবিতে তাকে দেখা যাবে অকাল প্রয়াত মান্নার সাথে। ‘লীলামন্থন’ শিরোনামের এ ছবিটি দীর্ঘ ৯ বছর আগে শুরু হয়েছিল। এটিই ছিল মান্নার শেষ ছবি। এখানে অবশ্য দীঘিকে শিশুশিল্পীর চরিত্রেই দেখা যাবে।

সূত্র জানিয়েছে, দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে নির্মিত ‘লীলামন্থন’ ছবিটির ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হওয়ার পর মারা যান মান্না। এরপর ছবিটির অন্যান্য কাজ শেষ করে এর পরিচালক জাহিদ হোসেন সেন্সর বোর্ডে জমা দেন। কিন্তু সেন্সর বোর্ডেই ছবিটি আটকে থাকে দীর্ঘ ৫ বছর। তবে আশার কথা হল সম্প্রতি ছবিটি ছাড়পত্র পেয়েছে। আর সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ২৫ এপ্রিলে দেশজুড়ে এ ছবিটি মুক্তি পাবে।






মন্তব্য চালু নেই