মেইন ম্যেনু

এফবিআই’র সহযোগিতা চাইছে বাংলাদেশ ব্যাংক

চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) সহযোগিতা চাইছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এজন্য বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকায় মার্কিন দূতাবাসে বাংলাদেশ ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে পাঠানো হয় বলে জানা যায়।

ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, ইতিমধ্যে সহযোগিতা চেয়ে এফবিআইকে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০১ মিলিয়ন ডলার চুরি করে একটি হ্যাকার গ্রুপ। এর ২০ মিলিয়ন নিয়ে যাওয়া হয় শ্রীলংকায়। আর বাকি ৮১ মিলিয়ন যায় ফিলিপাইনে। বাংলাদেশ ব্যাংক শ্রীলংকার ২০ মিলিয়ন ডলার উদ্ধারের দাবি করলেও এখনো খুব একটা অগ্রগতি আসেনি ফিলিপাইনে যাওয়া টাকা ফিরিয়ে আনা নিয়ে। টাকাগুলো যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের নিউইয়র্ক শাখা থেকে চুরি গেছে বলে দাবি করা হচ্ছে। যদিও মার্কিন কর্তৃপক্ষ তা অস্বীকার করেছে।

তবে ফিলিপাইনের একটি দৈনিক পত্রিকা ইনকোয়েরার তাদের এক প্রতিবেদনে সন্দেহভাজন ছয়জনকে শনাক্তের দাবি করেছে। যাদের ৫ জনের অ্যাকাউন্টে গিলেছিল হ্যাক করা অর্থ। যে অর্থ উঠিয়ে নিয়ে হ্যাকাররা ক্যাসিনোতে জুয়া খেলার উপযোগী করে, পরে সেটি আবার নগদ টাকায় রূপান্তর করে হংকংয়ের একটি অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করে।

এদিকে ফিলিপাইনের এ ছয়জনের সব ধরনের ব্যাংক হিসাব ছয় মাসের জন্য জব্দ করার নির্দেশনা দিয়েছে দেশটির আদালত। তাদের অ্যান্টি মানিলন্ডারিং কাউন্সিল এ বিষয়ে তদন্ত করছে।






মন্তব্য চালু নেই