মেইন ম্যেনু

এবার এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১০৯৭৬১ জন

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় গত বছরের তুলনায় পাসের হার কিছুটা বাড়লেও জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে।

এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১০ বোর্ডে গড় পাসের হার ৮৮ দশমিক ২৯ শতাংশ। গত বছর গড় পাসের হার ছিল ৮৭ দশমিক ০৪ শতাংশ। এবার পাসের হার ১ দশমিক ২৫ শতাংশ বেড়েছে।

মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৯ হাজার ৭৬১ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল এক লাখ ১১ হাজার ৯০১ জন। এবার জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ২ হাজার ১৪০ জন।

সারাদেশে একযোগে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি, মাদ্রাসা বোর্ডের দাখিল ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এসএসসির ফল প্রকাশ করা হয়েছে বুধবার।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ দুপুরে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ২০১৬ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের পরিসংখ্যান তুলে ধরেন। এর আগে সকাল ১০টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী বোর্ড চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলের সার-সংক্ষেপ তুলে দেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এবার ১৬ লাখ ৪৫ হাজার ২০১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১৪ লাখ ৭৩ হাজার ৫৯৪ জন। উত্তীর্ণদের মধ্যে ৭ লাখ ৪১ হাজার ৭৯৭ জন ছাত্র ও ৭ লাখ ১০ হাজার ৮০৮ জন ছাত্রী।’

তিনি আরও বলেন, ‘আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে পাসের হার ৮৮ দশমিক ৭০ শতাংশ, মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৮৮ দশমিক ২২ ও কারিগরি বোর্ডে ৮৩ দশমিক ১১ শতাংশ।’

গত বছর আট বোর্ডে পাসের হার ছিল ৮৬ দশমিক ৭২, মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৯০ দশমিক ২০ ও কারিগরি বোর্ডে ৮৩ দশমিক ০১ শতাংশ ছিল।

বিদেশ কেন্দ্রে পাসের হার ৮৯ দশমিক ৩৭ শতাংশ। এ ছাড়া এবার ৪ হাজার ৭৩৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সবাই পাস করেছে, ৫৩ প্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করতে পারেনি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, দেশের ৮টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডে এসএসসিতে এবার ১৩ লাখ ২৮৪ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। পাস করেছে ১১ লাখ ৫৩ হাজার ৩৬৩ জন। মাদ্রাসা বোর্ডে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৩৩৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ২ লাখ ১৭ হাজার ৩১৪ জন। কারিগরি বোর্ডে ৯৮ হাজার ৫৮১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে ৮১ হাজার ৯২৮ জন।

আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৬ হাজার ৭৬৯ জন। মাদ্রাসা বোর্ডে ৫ হাজার ৮৯৫ ও কারিগরি বোর্ডে ৭ হাজার ৯৭ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।

গত কয়েক বছরের মতো এবারও এসএসসিতে পাসের হারে শীর্ষে রয়েছে রাজশাহী বোর্ড। এ বোর্ডে পাসের হার ৯৫ দশমিক ৭০ শতাংশ। জিপিএ-৫ প্রাপ্তীতে বরাবরের মতো শীর্ষে রয়েছে ঢাকা বোর্ড। এ বোর্ডে ৪০ হাজার ৮৩৩ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে।

প্রথমবারের মতো এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলে সেরা প্রতিষ্ঠানের (টপ-২০, টপ-১০) তালিকা করা হয়নি।

সেরা হতে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান অনৈতিক পন্থা অবলম্বন করছে বলে পাবলিক পরীক্ষায় এ তালিকা থাকছে না বলে গত বছর এসএসসির ফল প্রকাশের সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এরপর থেকে এইচএসসি ও অষ্টম শ্রেণির সমাপনী জেএসসি-জেডিসিতে সেরা প্রতিষ্ঠানের তালিকা রাখা হয়নি। এসএসসিতে এবারই প্রথম এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়। তাত্ত্বিক বা লিখিত পরীক্ষা শেষ হয় ১০ মার্চ।






মন্তব্য চালু নেই