মেইন ম্যেনু

এবার কাটা হলো ট্রি-ম্যানের বাঁ হাতের ‘শিকড়’

তৃতীয় দফায় ট্রি-ম্যান বা বৃক্ষমানব আবুল বাজানদারের সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর সোয়া ১টা পর্যন্ত চলে এ অপারেশন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের পরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে চিকিৎসকদের একটি দল এ অস্ত্রোপচার করেন।

দীর্ঘ সোয়া ২ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে বাজানদারের বাম হাতের পাঁচ আঙুলেই অস্ত্রোপচার করা হয়। এর আগে গত ২০ ফেব্রুয়ারি কেটে ফেলা হয়েছিল তার ডান হাতে গজানো ‘শিকড়’র মতো আঁচিলগুলো।

এদিকে অস্ত্রোপচার শেষে আবুল কালাম বলেন, ‘সফলভাবে অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। বাজানদারের সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক।’

এ ধরনের অস্ত্রোপচারে স্থায়ীভাবে রোগমুক্তির সম্ভাবনা কতটুকু এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাজানদারের শরীরের বিভিন্ন সেম্পল আমেরিকায় পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে রিপোর্টের ভিত্তিতেই এ বিষয়ে বলা যাবে। রিপোর্টের আগে কোনো কিছু বলা যাচ্ছে না।’

‘ট্রি-ম্যান’ আবুল বাজনদারের প্রথম অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হয়। প্রথম দফায় ডান হাতের দুই আঙ্গুলে অস্ত্রোপচারের কথা থাকলেও পুরো পাঁচটি আঙ্গুলেরই অস্ত্রোপচার করা হয়। কেটে ফেলা হয় তার ডান হাতে গজানো ‘শিকড়’র মতো দেখতে আঁচিলগুলো। অস্ত্রোপচারের পর আঙুলগুলোও নাড়াতে পারছেন আবুল।

ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম, অধ্যাপক রায়হানা আউয়াল ও অধ্যাপক মো. সাজ্জাদ খন্দকারসহ ৯ সদস্যের একটি চিকিৎসক দল এ অস্ত্রোপাচার সম্পন্ন করেন। এই নয় সদস্য ছাড়া এ অপারেশনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন যৌন ও চর্ম বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক কবীর চৌধুরী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন।






মন্তব্য চালু নেই