মেইন ম্যেনু

এবার গৃহবধুর একসঙ্গে চার সন্তান প্রসব

চট্টগ্রামের নগরীর হাটহাজারীর পৌর এলাকার আলীপুর গ্রামের উম্মে কুলসুমা (১৯) গৃহবধুর এক সাথে চার সন্তান প্রসব করেছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় ৬.৩০ মিনিটের সময় উম্মে কুলসুমার প্রসব বেদনা হলে তিনি আলিফ হসপিটালে আসে।

তখন তার অতিরিক্ত প্রসব বেদনা শুরু হলে তাকে ডাঃ শারমিন আকতার চিকিৎসার জন্য আলিফ হসপিটালের লেবার রুমে তোলে। এই পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে উম্মে কুলসুমার নরমাল ডেলিভারীর মধ্যেমে ডাঃ সারমিন আকতার তার চারটি বাচ্চা প্রসব করায়।

চারটি সন্তানের মধ্যে তিনটি মেয়ে এবং একটি ছেলে। বাচ্চাগুলোর ওজন ছিল ৩০০-৪০০ গ্রাম। বাচ্চা গুলো জম্মে পর ডাঃ নুসরাত নাহার বাচ্চাগুলোর শারীরিক পরীক্ষা নীরিক্ষা করে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ডাঃ শারমিন আকতার বলেন, রোগীর ডেলিভারীর সময়ের আগেই পানি ভেঙ্গে যাওয়ায় তার নরমাল ডেলিভারী হয়।

জন্ম হওয়ার সময় বাচ্চাগুলো বেচেঁ থাকলেও ঠিক তার ১৫ মিনিট পর মারা যায়। ১২০০-১৩০০ গ্রোমের বাচ্চা বাচাঁতে অনেক কষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু এই বাচ্চাঁগুলোর ওজন ৩০০-৪০০ গ্রাম হওয়ায় বাচ্চাঁর প্রশ্নই আসে না । উন্নত চিকিৎসার অভাবে আমাদের দেশে এই সমস্ত ওজনের বাচ্চাঁগুলো বাচিয়ে রাখা সম্ভব। পারিবারিক সুত্রে জানা যায়,বিয়ে হওয়ার পর এই বাচ্চাঁগুলোই তাদের ১ম সন্তান।






মন্তব্য চালু নেই