মেইন ম্যেনু

এবার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে ধর্ষণ করলো বড় ভাই!

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোটার নোয়াখালী: নোয়াখালী সেনবাগে বড় ভাই ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে ধর্ষন করায় আদালতে মামলা। সেনবাগ উপজেলায় দৌলতপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, সেনবাগ উপজেলার আয়ুবপুর গ্রামে বিবি কুলছুম (১৯), এর সহিত একই উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে নুরুল হুদার সহিত শুভ বিবাহ হয় গত ২৯ ফেব্রুয়ারী সোমবার রাত ১০ টার সময় তার স্বামীর বসত ঘরের উত্তর পূর্ব কোনের রুমে বাসুরের কতৃক ধর্ষন হয়।

এই ঘটনায় ১৫ মার্চ ধর্ষীতা বিবি কুলছুম তার বাসুরের বিরুদ্ধে সকাল ১১ টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল নোয়াখালী বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোঃ মাহতাব হোসেন উপস্থিত একখানা নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেন যাহা অভিযোগ নং-৩২৮/২০১৬ অভিযোগে উল্লেখ করেন নাঃ শিঃ নিঃ দমন আইন ২০০০(সংশোধনী ২০০৩) এর ৯(১) ধারা, আদালতের অভিযোগ সূত্রে জানাযায় বিবি কুলছুম অভিযোগকারীনি একজন সহজ সরল নিরীহ পর্দানশীল গৃহ বধু হয়।

অপর দিকে তার স্বামীর আপন বড় ভাই নুরুল আমীন (৪২) একজন সন্ত্রাসী, মাস্তান, নারী নির্যাতন কারী, ও নারী ধর্ষনকারী শ্রেনীর লোক হয়। উল্লেখিত আসামী বাদিনীর স্বামীর আপন বড় ভাই ও ভাসুর হয়।

অভিযোগকারীনির স্বামী নুরুল হুদা চট্টগ্রামে টাইলস্ মেস্ত্রীর কাজ করে আসামীর অপর এক ভাই সুজন তাহার স্বামীর সঙ্গে চট্টগ্রামে টাইলস্ মেস্ত্রীর কাজ করে এবং তাদের অপর ভাই রুহুল আমীন সৌদি আরবে কর্মরত। উল্লিখিত অভিযোগকারীনির স্বামী যৌথ পরিবার একমাত্র বিদ্ধা শাশুড়ী সহ একই ঘরে ভিন্ন রুমে বসবাস করে। আসামী নুরুল আমীন (৪২) বিবি কুলসুমের স্বামীর অনপস্থিতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের খারাপ অঙ্গ ভঙ্গি এবং ইশারা ইংগিত করিত। বিবি কুলসুম মান সম্মানের দিকে তাকাইয়া তার স্বামী সংসারে সংসার ধর্ম চালাইয়া যাইতে থাকে।

স্বামীদের যৌথ পরিবার একই ঘরে বসবাস করে। ঘটনার দিন ও তারিখ রাত ৯টার দিকে বিবি কুলসুম তার শাশুড়ীসহ রাত্রে খাওয়া দাওয়া শেষে তাদের নিজ নিজ রুমে অথাৎ বিবি কুলসুম তাহার রুমে একা ঘুমাইয়া পড়ে। রাত অনুমান ১০টার দিকে স্বামীর বড় ভাই বিবি কুলসুমের ভাসুর রুমে চুপিসারে ঢুকিয়া পড়ে। বিবি কুলসুমকে ঘুমন্ত অবস্থায় ডান হাত দিয়া মুখ চিপিয়া ধরিয়া বিবি কুলসুমের পরনে থাকা পায়জামা বাম হাত দিয়া টানা হেচড়া করিয়া কিছু অংশ ছিঁড়ে ফেলে এবং পরনের পায়জামার রশি টানিয়া এক পর্যায়ে জোর পূর্বক খুলিয়া বিবি কুলসুমের ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। বিবি কুলসুমের মুখের দুই পাশে ও শরীলের বিভিন্ন অঙ্গে চুমু-কামড় ও খামচি মারিয়া জখম করে। বিদ্যুৎ এর আলোতে তাহার ভাসুরকে চিনিতে পারে বলে আদালতকে জানান।

ভাসুর নুরুল আমীন রুম হতে চলিয়া যাওয়ার সময় বলে বিষয়টি তার ছোট ভাই নুরুল হুদা বা অন্য কাউকে জানালে বিবি কুলসুমকে মারিয়া হত্যা করিয়া লাশ গুম করিয়া ফেলিবে বলে হুমকি দেয়।

ভাসুর কর্তৃক ধর্ষিত হওয়ার বিষয়ে অভিযোগ কারীনি তার স্বামী চট্টগ্রাম অবস্থানরত তাহার স্বামী তথায় নুরুল হুদাকে মোবাইলের মাধ্যমে জানাইলেন। স্বামী তার স্ত্রীর কথা শুনে আশ্বাস দেন দুই দিন পর আমি বাড়ীতে আসিয়া আইনগত ব্যবস্থা নিব। বিবি কুলসুম স্বামীর ফোনে কথা শুনে চুপ থাকিয়া মোবাইল কাটিয়া দেয়।

2015-07-22 13.46.08

এই দিকে বিবি কুলসুম তার শাশুড়ীকে ভাসুরের বিষয় জানালে শাশুড়ী বলে আমি বৃদ্ধা হয়ে গেছি আমার কথা কেউ শুনেনা। বিবি কুলসুম ধর্ষীতা হওয়ার বিষয় তাহার মাতা ২নং স্বাক্ষী হাসিনা বেগমকে জানাইলে বিষয়টি নিয়া স্বামীকে জানানোর কথা বলে এবং কাউকে কোন কিছু না জানানোর জন্য অনুরোধ করে তার স্বামী বাড়ীতে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করিতে বলে। স্বামী বাড়ীতে আসার পর কারো কাছে বিচার না পেয়ে সেনবাগ থানায় একটি ধর্ষনের মামলা দায়ের করিতে গেলে থানায় কর্তৃ পক্ষ মামলাটি গ্রহন করিয়া পরবর্তীতে এজাহার হিসাবে গন্য না করিয়া ১৪ মার্চ ফেরত দেয়। তাই ১৫ মার্চ আদালতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয় বিবি কুলসুম।

একই সাথে বাসুর কর্তৃক ধর্ষিতা ভিকটিম তথা অত্র মামলার অভিযোগকারীনিকে ডাক্তারী পরীক্ষা করানোর জন্য হুজুর আদালতের আদেশ হওয়ায় আবশ্যক নচেৎ ভিকটিমের অপূরণীয় ক্ষতির কারন হইবে বলে আদালতকে জানান।

আদালতে উপস্থিত বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোঃ মাহতাব হোসেন অভিযোগকারীনির অভিযোগ এডভোকেট নিজাম উদ্দিন কর্তৃক বাদী পক্ষের উপস্থাপন আমলে নিয়া সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে মামলা তদন্ত করে প্রতিবেদন ও ডাক্তারি রিপোর্ট আদালতে দাখিল করার জন্য নির্দেশ দেন বলে জানা যায়।






মন্তব্য চালু নেই