মেইন ম্যেনু

এবার জাকির নায়কের মাথার দাম ৫০ লাখ ঘোষণা করলেন হিন্দু নেত্রী সাধ্বী

ভারতের মহারাষ্ট্রের ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েকের মুন্ডু কেটে আনলে ৫০ লাখ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী প্রাচি।

আজ (বৃহস্পতিবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, যে ব্যক্তি সৌদি আরবে গিয়ে জাকির নায়েকের মাথা মাথা কেটে আনবে এবং তা দেশের সবচেয়ে বড় গাছে ঝোলাবে তাকে ৫০ লাখ টাকা দেয়ার কথা ঘোষণা করেছেন সাধ্বী। তিনি অবশ্য ব্যক্তিগতভাবে ওই পুরস্কার দেবেন এবং এর সঙ্গে সংগঠনের কোনো সম্পর্ক নেই বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

সাধ্বী প্রাচি বুধবার উত্তরাখণ্ডের রুরকিতে বলেন, ‘ভারতের সবচেয়ে বড় শত্রু’ হল জাকির নায়েক। তিনি ধর্মীয় গুরু সেজে সন্ত্রাসবাদের চারা তৈরি করছেন।’ তার ভাষায়, ‘জাকির নায়েকের মতো মুসলিম ধর্মগুরুদের বিরুদ্ধে তদন্ত চালাতে হবে’। তিনি প্রশ্ন তুলে বলেন, এখন এ নিয়ে ফতোয়া জারি করা হচ্ছে না কেন?

সাধ্বী প্রাচি অবশ্য এখানেই থেমে থাকেননি। তিনি বলেছেন, দেশের সমস্ত মাদ্রাসায় কঠোর ভাবে তদন্ত চালাতে হবে এবং তা বন্ধ করে দিতে হবে। তার দাবি, এসব মাদ্রাসায় সন্ত্রাসী তৈরি করা হচ্ছে যা দেশের জন্য বিপদ সৃষ্টি করছে।

কাশ্মির পরিস্থিতি নিয়ে সাধ্বী প্রাচীর বলেন, সেনাবাহিনীকে পূর্ণ ক্ষমতা দিয়ে উপত্যাকাকে তাদের হাতে তুলে দিতে হবে। তাহলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই তারা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে ফেলবে। সেনাবাহিনী ক্ষমতা পেলে তারা বুরহানের অনুসারীদের ঘরে প্রবেশ করবে। রাজনৈতিক কারণেই সেনাবাহিনী সেখানে কাজ করতে পারছে না বলেও মন্তব্য করেন সাধ্বী প্রাচি।

সাধ্বী প্রাচি কিছুদিন আগেই ‘মুসলিম মুক্ত ভারত’ তৈরি করা সংক্রান্ত বিবৃতি দেয়ায় তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়। উত্তরাখণ্ডের রুরকিতে তিনি সেসময় বলেন, ‘আমরা কংগ্রেস মুক্ত ভারত করেছি, এবার মুসলিম মুক্ত ভারত তৈরি করা প্রয়োজন। আমরা এ নিয়ে কাজও চালাচ্ছি।’ তার এ ধরণের মন্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশ্যে আসার পর বেশ কয়েকটি জায়গায় তার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয় এমনকি জম্মু-কাশ্মির বিধানসভাতেও এ নিয়ে তুমুল গোলমাল সৃষ্টি হয়।-প্যারিস টুডে






মন্তব্য চালু নেই