মেইন ম্যেনু

এবার ট্রেনে ছুরি নিয়ে উঠতে পারবেন মহিলা যাত্রীরা

রাজধানীর পথেঘাটে সাম্প্রতিক পরপর নারী নিগ্রহের ঘটনার জের ধরে দিল্লি মেট্রোয় মেয়েদের সঙ্গে ছুরি রাখার সম্মতি মিলল। আত্মরক্ষায় মহিলা যাত্রীরা এবার থেকে ৪ ইঞ্চি পর্যন্ত আয়তনের ছুরি নিয়ে মেট্রোয় চলাফেরা করতে পারবেন। সিআইএসএফ এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র দিয়েছে বলে খবর।

শুধু ছুরিই নয়, মেট্রোয় এবার লাইটার, দেশলাই বাক্স নিয়েও ওঠা যাবে। এক সিআইএসএফ অফিসার জানিয়েছেন, মেট্রো ব্যবহার করা দিনমজুর, শ্রমিকরা বারংবার তাঁদের পেশায় লাগা যন্ত্রপাতি সঙ্গে নিয়ে যাত্রা করার অনুমতি চেয়েছিলেন।

এখন তাঁরা যন্ত্রপাতি নিয়ে মেট্রোয় ভ্রমণ করতে পারেন। তবে যন্ত্রপাতিগুলি পরীক্ষা করে লিখে রাখা হয়, যাতে ট্রেনের ভিতরে কোনও অবাঞ্ছিত ঘটনা ঘটে গেলে সেগুলির হদিস পাওয়া যায়।

দিল্লি মেট্রো রেল কর্পোরেশনের নির্দেশে অবশ্য যাত্রীদের মেট্রোয় ধারালো অস্ত্র, বন্দুক, আগ্নেয়াস্ত্র, দাহ্য বস্তু নিয়ে ওঠার অনুমতি নেই। তবে দিল্লির বুকে ২০১২-র ১৬ ডিসেম্বরে সংঘবদ্ধ শারীরিক নির্যাতনের ঘটনার পর দেশজুড়ে শোরগোলের জেরে নতুন আইন চালু হলেও মেয়েদের ওপর নির্যাতন নিগ্রহ বন্ধ হয়নি। সে কথা মাথায় রেখেই মেয়েদের ছুরি নিয়ে মেট্রোয় ওঠার অনুমতি দেওয়া হল।

নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা মহিলা যাত্রীদের মেট্রোয় পুরুষের অসভ্যতা মোকাবিলায় ছুরি সঙ্গে রাখার সম্মতিকে স্বাগত জানালেও একই সঙ্গে সংশয়ী, এর ফলে ব্যক্তিগত প্রতিহিংসা পূরণের সুযোগ পেয়ে যাবেন না তো কেউ কেউ? খুব বেশিদিন আগের কথা নয়। দিল্লি মেট্রোয় নিরাপত্তারক্ষীদের তল্লাসিকে ফাঁকি দিয়েই কুঠার নিয়ে উঠে পড়েছিলেন ৬৫ বছরের এক মহিলা। উদ্দেশ্য ছিল, আগে আসন নিয়ে বাকবিতণ্ডা হওয়া এক পুরুষ যাত্রীর ওপর হামলা করা।-এবিপি আনন্দ






মন্তব্য চালু নেই