মেইন ম্যেনু

এবার ধরা খাচ্ছে সৌদি আরব!

মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল দেখতে পেয়েছে যে ইয়েমেনে ব্রিটেনের তৈরি নিষিদ্ধঘোষিত গুচ্ছ বোমা ব্যবহার করছে সৌদি আরব। উত্তরাঞ্চলীয় ইয়েমেনের দূরবর্তী একটি গ্রামে অবিস্ফোরিত এ রকম গুচ্ছবোমা পাওয়া গেছে। সৌদি আরবের এমন কর্মকাণ্ড চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এমন ঘটনা যদি সত্য প্রমানিত হয় তাহলে সৌদি আরবের প্রতি নেয়া হতে পরে বড় ধরণের কোনো ব্যবস্থা।

বিতর্কিত বিএল-৭৫৫ গুচ্ছ বোমাকে কয়েক দশক আগেই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ১৯৭০এর দশকে ব্রিটিশ কোম্পানি হান্টিং ইঞ্জিনিয়ারিং এ বোমাটি তৈরি করেছে। ব্রিট্রিশ যুদ্ধবিমান টর্নেডো থেকে ফেলার উপযোগী করে এ বোমা তৈরি করা হয়েছিল। সৌদি আরবের কাছে টনের্ডো বিমানও বিক্রি করেছে ব্রিটেন।

প্রতিটি বিএফ-৭৭৫’এর ভেতরে রয়েছে ১৪৭টি গুচ্ছ বোমা। ফাটার পর এ সব বোমা বিশাল এলাকা জুড়ি ছড়িয়ে পড়ে। এ সব বোমার সবগুলোই একসাথে বিস্ফোরিত হয় না বরং আত্মগোপন করে থাকে। বুঝতে না পেরে নিরীহ মানুষ এ সব বোমার কাছ দিয়ে যাওয়ার সময় বা এতে পা দিলে তা বিস্ফোরিত হয়।

১৯৮০ এবং ১৯৯০ এর দশকে শতাধিক দেশ এ বোমার ব্যবহার নিষিদ্ধ ঘোষণা করা সত্ত্বেও সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে তা ব্রিটেন বিক্রি করেছে বলে মনে করা হয়। ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি আরবের ঘনিষ্ঠ মিত্র সংযুক্ত আরব আমিরাত।-প্যারিস টুডে।






মন্তব্য চালু নেই