মেইন ম্যেনু

এবার ফিক্সিংয়ে জড়ালো খোদ আইসিসি!

বিশ্বকাপ হোক আর যাই হোক, আইসিসির কোন টুর্নামেন্টে ভারত-পাকিস্তান থাকলে তারা এক গ্রুপে পড়বেই। এটা যেন একটা নিয়তিই হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতদিন তো মানুষ মনে করতো ভাগ্যক্রমেই গ্রুপ পর্বে একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-পাকিস্তান। তবে, রহস্যটা আর লুকায়িত থাকলো না। ২০১৭ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ড্রয়ের পরও যখন দেখা গেলো ভারত-পাকিস্তান পড়েছে একই গ্রুপে, তখন সরাসরিই বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট অনুরাগ ঠাকুর ফাঁস করে দিয়েছেন ব্যাপারটা। ইচ্ছা করেই না কি একই গ্রুপে ফেলা হয় ভারত-পাকিস্তানকে।

এবার অনুরাগ ঠাকুরের এই অভিযোগ স্বীকার করে নিলো খোদ আইসিসিই। বিশ্ব ক্রিকেট সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন বিষয়টা স্বীকার করে জানিয়েছেন, তারা ইচ্ছা করেই ভারত এবং পাকিস্তানকে একই গ্রুপে রেখেছে। ইচ্ছা করে এমন কাজ করাটাই ফিক্সিং। এই বিষয়টা সরাসরি স্বীকার করে নিল আইসিসি।

ডেভ রিচার্ডসন অবশ্য এর একটা কারণ জানিছেন, ‘আইসিসির এসব মেঘা ইভেন্টে বাণিজ্যিক লাভের উদ্দেশ্যেই ভারত-পাকিস্তানকে একই গ্রুপে ফেলা হয় ইচ্ছা করে।’ আগামী চ্যাম্পিয়ণ্স ট্রফিতে ইংল্যান্ডের এজবাস্টনে, ২০১৭ সালের ৪জুন মুখোমুখি হবে চির প্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দেশ।

আইসিসি প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন বলেন, ‘এখানে কোন সন্দেহ নেই যে আমরা ইচ্ছা করেই ভারত-পাকিস্তানকে একই গ্রুপে ফেলার চেষ্টা করি। কারণ, বাণিজ্যিক দিক থেকে এটা আইসিসির কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পুরো টুর্নামেন্টের আকর্ষণ বাড়াতে এই একটি ম্যাচের মোটেও বিকল্প নেই। সারা বিশ্বেই এই ম্যাচটি নিয়ে উন্মাদনা তৈরী হয় এবং ভক্ত-সমর্থকরাও এই ম্যাচ নিয়ে প্রত্যাশায় থাকে।’






মন্তব্য চালু নেই