মেইন ম্যেনু

এবার বাজেট বক্তৃতার বইটির রং সবুজ : অর্থমন্ত্রী

সচিবালয়ে নিজ রুমে ঢুকতেই অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বাজেট বক্তৃতার সবুজ রংয়ের বইটি দেখিয়ে বললেন, ‘দেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথম বাজেট বক্তৃতার বইয়ের রং ছিল লাল। এরপর প্রতিটি বাজেট বক্তৃতার বইয়ের রং ছিল সাদা। এবারের বাজেট বক্তৃতার বইটির রং সবুজ। এসময় অর্থসচিব মাহবুব আহমদকে দেখিয়ে বলেন, অর্থসচিব এবারের “সমৃদ্ধির সোপানে বাংলাদেশ উচ্চ প্রবৃদ্ধির পথ রচনা” বাজেট বইয়ের প্রচ্ছদটি পরিকল্পনা করেছেন।’

এর আগে অর্থমন্ত্রী হাস্যোজ্জল মুখে ক্রিম রংয়ের পায়জামা এবং কালো মুজিবকোট পরে বেলা সাড়ে ১১টায় হেয়ার রোডের সরকারি বাসভবন ‘তন্ময়’ থেকে বের হয়ে সচিবালয়ে যান। সেখানে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে প্রস্তাবিত বাজেট পেশের আগে বিধি অনুযায়ী জাতীয় সংসদে অনুষ্ঠেয় কেবিনেট বৈঠকে যোগ দিতে সংসদ ভবনের দিকে রওয়ানা হন। কেবিনেট বৈঠকে প্রস্তাবিত বাজেট পেশের অনুমোদন নেওয়া হবে।

বিকেল ৩টায় অর্থমন্ত্রী ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরের বাজেট পেশ করবেন। এবারই প্রথম বাজেটে বক্তৃতার বইয়ের রং সবুজ করা হয়েছে। আর বাজেট বক্তৃতার বইয়ের পৃষ্ঠার সংখ্যাও কমে ৮৯ পৃষ্ঠা করা হয়েছে।

বিগত কয়েকদিন নির্ঘুম রাত কাটিয়ে গতকাল রাতে কিছুটা ঘুমিয়েছেন বলে জানান অর্থমন্ত্রী। সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তা খেয়ে কিছু সময় দিনের সব পত্রিকাগুলোতে নজর দেন। এরপর বেলা ১১টায় তিনি বাসা থেকে বের হন। এসময় তিনি খুবই ফুরফুরে মেজাজে ছিলেন। এসময় তিনি বলেন, এবারের বাজেটের দুটি চমক থাকবে। যা সম্পূর্ণ নতুন। এবার বাজেট বক্তৃতায় ১৯৭২ সালে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের বাজেট বক্তৃতার অংশ বিশেষ এবং আমার প্রথমবারের বাজেটের অংশ বিশেষ পড়ে শোনানো হবে।






মন্তব্য চালু নেই