মেইন ম্যেনু

এবার মানচিত্রেও শোনা যাবে শব্দ

সাধারণত দেশের অবস্থান জানার জন্য মানচিত্র ব্যবহৃত হয়। কিন্তু এমন যদি হয়, আপনি একটি দেশের যে এলাকাটি খুঁজছেন মানচিত্রে তা পেয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই এলাকাভিত্তিক শব্দও শুনতে পারবেন। এমনি এক মানচিত্র উদ্ভাবন করেছে গবেষক লুকা মারিয়া এইলিউ, রোসানো শিফানেলা এবং ফ্রানসিস্কো অ্যালেট্টা মিলে বানিয়েছেন নতুন শব্দ সমৃদ্ধ এ মানচিত্র।

বর্তমানে এ মানচিত্রের অন্তর্ভুক্ত আছে নিউ ইয়র্ক, লন্ডন, বোস্টন, মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা। মানচিত্রের শব্দে পাঁচটি ভাগ আছে। যানবাহন, প্রকৃতি, মানুষ, গান এবং কল কারখানার শব্দে আপনি চিনে নিতে পারবেন এলাকাগুলো। শব্দের সঙ্গে সঙ্গে এতে আছে রঙের পার্থক্য। লাল, সবুজ, নীল, হলুদ এবং ‍ধূসর রঙে চেনা যাবে এলাকাগুলি। সবুজ রঙের এলাকাগুলোতে শুনতে পাওয়া যাবে পাখির ডাক এবং পানির ফোয়ারার শব্দ। আর লাল রঙের এলাকাগুলোতে শোনা যাবে বাস, ট্রাম এবং অন্যান্য যানবাহনের শব্দ। অন্যান্য শব্দগুলোতেও আছে এই ধরনের বৈচিত্র্য।

গবেষকরা এ শব্দগুলো সরাসরি নির্দিষ্ট এলাকা থেকে ধারণ করেননি। তবে তারা বেশিরভাগ শব্দ ফ্লিকারের ছবিসহ সংগ্রহ করেছেন। তারা এ মানচিত্রের নাম দিয়েছেন ‘প্রথম শহুরে শব্দ অভিধান।’ আর এ মানচিত্রটি জনসাধারণের জন্য উম্মুক্ত। শিগগিরই মানচিত্রের পরিধি বৃদ্ধি করা হবে বলে জানান গবেষকরা।






মন্তব্য চালু নেই