মেইন ম্যেনু

এবার রাষ্ট্রপতির আদেশে ‘রানা প্লাজা’ বন্ধ

এবার রাষ্ট্রপতির আদেশে বন্ধ হলো আলোচিত সিনেমা ‘রানা প্লাজা’। ২০১৩ সালে সাভারে রানা প্লাজা ধ্বসের ঘটনা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে স্থান পায়। ভবনটির তৃতীয় তলা থেকে সপ্তম তলায় পোশাক কারখানা থাকায় হাজারের অধিক পোশাক শ্রমিক মারা যান। এ ঘটনা কেন্দ্র করেই নির্মিত রানা প্লাজা সেন্সর ছাড়পত্র পেলেও সুপ্রিম কোর্ট আটকে দেয়।

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ থেকে রানা প্লাজা চলচ্চিত্র বাধা কাটিয়ে উঠলেও রাষ্ট্রপতির আদেশে এবার তা আটকে গেল। বৃহস্পতিবার বিকেলে পরীমণি ও সায়মন অভিনীত চলচ্চিত্রটির প্রদর্শনী সাময়িকভাবে স্থগিত করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব জি এম নাজমুল হোসেন খান স্বাক্ষরিত ঐ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘সিভিল রিভিউ পিটিশন নং ১৯১/২০১৫ শুনানিকালে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের পর্যবেক্ষণের আলোকে ফিল্ম সেন্সর আপিল কমিটি কর্তৃক রানা প্লাজা নামক চলচ্চিত্রের আপিল সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত না পাওয়া পর্যন্ত সেন্সর সার্টিফিকেট সাময়িকভাবে স্থগিত করা হলো এবং রানা প্লাজা নামক চলচ্চিত্র সমগ্র বাংলাদেশে সাময়িকভাবে স্থগিত করা হলো।’

এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। এ বিষয়ে ‘রানা প্লাজা’র পরিচালক নজরুল ইসলাম খান গণমাধ্যমের কাছে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, এই ছবিটি প্রদর্শন করতে হলে আরও কত পাহাড় ডিঙ্গাতে হবে সেটাই এখন ভেবে পাই না।

এর আগে সকালে ‘রানা প্লাজা’ চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী বন্ধে রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) আবেদন খারিজ করে দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। এই রায়ে চলচ্চিত্রটি প্রদর্শনে বাধা কেটে যায়। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন।






মন্তব্য চালু নেই