মেইন ম্যেনু

এবার সেলফির অজুহাতে স্ত্রীকে হত্যা করল স্বামী

অনেকটা যেন শাহরুখ খানের বাজিগর সিনেমা। সিনেমার পর্দায় দেখা গিয়েছিল সুন্দর পায়ের প্রশংসা করতে করতে ছাদ থেকে প্রেমিকাকে ফেলে দিয়েছিল প্রেমিক। সেইসময় বাজার গ্রাস করেনি মোবাইল। স্মার্ট ফোন বা সেলফি তোলার সংজ্ঞাও তখন ছিল অজানা। ২০১৬ সালে সেলফির দৌলতে পালটে গেল খুনের ধরণ। খালের ধারে স্ত্রীকে নিয়ে ছবি তোলার অজুহাতে পোজ দিয়ে স্ত্রীকে দাঁড় করিয়ে কায়দা করে সেই খালেই নিজের বিবাহিত স্ত্রীকে ফেলে দিল স্বামী। পণ নিয়ে বিবাদের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর প্রদেশের মীরাটে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ২৪ বছর বয়সী আয়েশার সঙ্গে বছর দেড়েক আগে বিয়ে হয়েছিল ৩০ বছরের আফতাবের। বিয়ের পর থেকে পণ নিয়ে বিবাদ ছিল আফতাব-আয়েশার সংসারের নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। আয়েশাকে হত্যার পর আট মাসের ছেলেকে নিয়ে থানায় গিয়ে আফতাব জানায়, কিছু ছিনতাইবাজ তাঁদের উপর হামলা করেছিল। তাদের খালে পরে মৃত্যু হয়েছে আয়েশার। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলে আফতাবের বয়ানে অনেক অসঙ্গতি লক্ষ্য করে। ক্রমাগত জেরার মুখে ভেঙে পরে আফতাব। অবশেষে নিজের দোষ কবুল করে নেয় সে। আফতাবের সঙ্গে তার ভাই শেহজাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ।-কলকাতা২৪



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই