মেইন ম্যেনু

এবার হচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম উড়াল সড়ক

রাজধানীর ঢাকার সঙ্গে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করতে ২২০ কিলোমিটার উড়াল সড়ক (এক্সপ্রেসওয়ে) নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার শেরে বাংলানগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। বৈঠক শেষে পরিকল্পমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

পরিকল্পমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চারলেনের উপর দিয়ে এই এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করা হবে। ঢাকা থেকে এক্সপ্রেসওয়ে ব্যবহার করলে চট্টগ্রাম গিয়ে নামতে হবে। অন্যথায় ২২০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই এক্সপ্রেসওয়ের অন্য কোথাও থামবে না।’

মুস্তফা কামাল বলেন, ‘এক্সপ্রেসওয়ের উপরে কোনো শপিং সেন্টার নির্মাণ করা হবে না। মহাসড়ক অনেক সময় হকাররা দখল করে। কিন্তু এখানে কারো দাঁড়ানোর কোনো সুযোগ নেই। পদ্মাসেতুর মতোই এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প হতে যাচ্ছে। আজকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী প্রকল্পটির কাজ শুরু করতে নির্দেশ দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘ঢাকা-চট্টগ্রাম চারলেনের উপরে হবে আরো একটি ফোরলেন। এই ফোরলেনটি ১৯০ কিলোমিটার তবে এক্সপ্রেসওয়ে আরো একটু বেশি হবে, অর্থাৎ ২২০ কিলোমিটার। এর ফলে সড়কপথে খুব কম সময়ে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে যাতায়াত করা যাবে।’

পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা যায়, চারলেন উড়াল সড়ক দিয়ে বাস, ট্রাকসহ অন্যান্য পরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করা হবে। একটি রুটে রেলপথের ব্যবস্থা করা যায় কি না সেই বিষয়ে খুব শিগগিরই সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠক করবেন পরিকল্পনামন্ত্রী।






মন্তব্য চালু নেই