মেইন ম্যেনু

‘এভাবে খেললে বড় দলের সিডিউল পাওয়া সম্ভব’

একটা সময় ছিল যখন বাংলাদেশের সঙ্গে বড় কোনো দল ক্রিকেট খেলতে চাইত না। দিন পাল্টেছে। বেড়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের মান।সম্প্রতি ওয়ানডেতে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান, ভারত এবং টেস্টের এক নম্বর দল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে টাইগাররা।

বিশ্বের সব বড় বড় ক্রিকেটারদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এখন লড়াই করছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। শীর্ষ অলরাউন্ডারদের তালিকায় প্রথম নামটি কিন্তু বাংলাদেশি এক ক্রিকেটারের। সাকিব আল হাসান শুধু এক ফরম্যাটে না, ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই সেরা অলরাউন্ডার।

দল হিসেবে বাংলাদেশ উন্নতি করছে। ঘরের মাঠে টানা সিরিজ জয় তারই প্রমাণ। দুই সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে হারানোর পর ক্রিকেটের অন্যতম পরাশক্তি দক্ষিণ আফ্রিকাকেও হারিয়েছে বাংলাদেশ। এবার টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দাপটের সঙ্গে লড়াই করেছে। কিন্তু বেরসিক বৃষ্টির কারণে দুই দলের ক্রিকেটীয় যুদ্ধ জমছে না।

চট্টগ্রাম টেস্টের চারদিন কেটেছে। চার দিনে বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম টেস্টের ১৩৯.৫ ওভার নষ্ট হয়েছে। ফলাফল পাওয়ার সম্ভবনা কম! বর্ষা মৌসুমে টেস্ট ম্যাচ কেন? প্রশ্নটা দলের ম্যানেজার ও বিসিবির পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজনের কাছে ছুঁড়ে দিতেই সহজ স্বীকারোক্তি,‘সিডিউল সমস্যা। সব বড় দল কিন্তু সবসময় আমাদের সঙ্গে খেলতে চায় না। এ সময়ে দক্ষিণ আফ্রিকা খেলতে চেয়েছে বলে আমাদের এখন খেলার আয়োজন করতে হয়েছে।’

তবে সুজন আশা ব্যক্ত করে বলেন, ‘আমরা যেভাবে এখন খেলছি, আগামীতে যদি সেভাবে খেলতে পারি তাহলে বড় দলগুলোর সিডিউল পেতে কোনো সমস্যা হবে না। যারা খেলতে অনিচ্ছুক তখন তারাও আমাদের বিপক্ষে খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করবে।’






মন্তব্য চালু নেই