মেইন ম্যেনু

এলাকাবাসীর টাকায় সড়কে ইট বালি

চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলার চিকদাইর এলাকাবাসী চাদাঁর টাকায় স্বেচ্ছাশ্রমে চান্দ মিয়া সারাং সড়কের উন্নয়ন কাজ করছেন এলাকাবাসী। গত ১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এলাকার সকল বয়সের লোকজন সড়কের উন্নয়ন কাজে যোগ দিয়ে সড়কের উন্নয়ন কাজ করেন।

এলাকাবাসীর আর্থিক সহায়তায় স্চ্ছোশ্রমে সড়কের উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন এলাকার বাসিন্দ্বা রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাকির হোসেন মাষ্টার । রাউজান উপজেলা ২নং ডাবুয়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী ও চিকদাইর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী এলাকার উপর দিয়ে চলে যাওয়া চান মিয়া সারাং সড়কটির বেহাল অবস্থা সৃষ্টি হয়ে এলাকার বাসিন্দ্বাদের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে উঠলে ও সড়কের উন্নয়নে দুই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কেউ সড়কের উন্নয়ন কাজ করেনি। সড়কটি দিয়ে এলাকার মানুষ চরম দুভোর্গের মধ্যে চলাচল করে।

এলাকার মুনুষের চলাচলের চরম দুভোর্গ দেখে চান মিয়া সারাং বাড়ীর বাসিন্দ্বা প্রবাসী রাউজান ফকির হাট বাজারের প্লাজার পরিচালক আবুল বশর ও প্রবাসী এম জে স্কোয়ার কমিনিউটি সেন্টারের পরিচালক হাজী মোঃ ইউছুপ সহ এলাকার বাসিন্দ্বারা নিজেদের অর্থ দিয়ে ইট বালু ক্রয় করে নিয়ে আসেন।

এলাকার বাসিন্দ্বারা নিজেদের টাকায় ক্রয় করা ইট বালু দিয়ে নিজেরা শ্রমিক সেজে সড়কের উন্নয়ন কাজ করতে দেখা যায়। এক কিলোমিটার দৈর্ঘ চান মিয়া সারাং সড়কের মধ্যে ব্রীক সলিংয়ের কাজ করবেন বলে জানান আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন মাষ্টার। ইতি পুর্বে এলাকার বাসিন্দ্বারা নিজেদের অর্থ ও শ্রম দিয়ে চার মিয়া সারাং বাড়ীর অর্ধ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়ন কাজ করেছেন বলে জানান এলাকার বাসিন্দ্বা আবু তাহের ।

রাউজানের চিকদাইর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের চান মিয়া সারাং সড়কে স্চ্ছোশ্রমে কাজ করে উন্নয়ন কাজের উদ্বোধনী অনুষ্টানে আরো উপস্থিত ছিলেন হাজী আবু তাহের, মোঃ আবুল বশর, হাজী মোঃ ইউছুপ, মোঃ জফর, জসিম, আবদুল জলিল, শাহজাহান, আবদুল হামিদ মাষ্টার, মোঃ হাসান, নুরুল আলম, ফোরকান, রুস্তম আলী, সোহেল, জাহেদুল আলম, মোঃ আলম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই