মেইন ম্যেনু

এশিয়া কাপে নতুন প্রযুক্তি ‘স্মার্ট স্ট্যাম্পস’

ক্রিকেটে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন প্রযুক্তি যোগ হচ্ছে। বিশেষ করে গত অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে এইচডি অর্থ্যাৎ হাই ডেফিনেশন প্রযুক্তিতে খেলা সম্প্রচার করে সারা দুনিয়াকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল। এবারের এশিয়া কাপেও নতুন একটি প্রযুক্তি যোগ হয়েছে। তার নাম ‘স্মার্ট স্ট্যাম্পস’।

নতুন এই প্রযুক্তিতে কাঠের স্ট্যাম্পগুলো এখন আর আগের মতো আর জড় পদার্থ থাকবে না। এবারের মাঠে থাকবে এলইডি স্ট্যাম্প। স্ট্যাম্পকে নাড়ানো হলেই জ্বলে উঠবে বাতি। রান আউট, স্ট্যাম্পিংয়ের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে আম্পায়ারের সাক্ষী হবে এসব স্ট্যাম্প।

আম্পায়ারদের কানে গোজা থাকবে রিয়েল টাইম স্নিকো। এর মাধ্যমে আম্পায়ররা পিচের অতি সূক্ষ্ম শব্দও স্পষ্ট শুনতে পাবেন। ব্যাটসম্যানের গায়ে না ব্যাটে বল লেগেছে সে সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ হবে আম্পায়ারদের জন্য। এর সবচেয়ে বেশি সুবিধা পাবেন থার্ড আম্পায়ার। ছবির সাথে শব্দ মিলিয়ে নির্ভুল সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন তিনি।

স্নিকোর কাজ অবশ্য বেশ সোজা। এটা প্রথমে শব্দকে শনাক্ত করবে এবং শব্দ তরঙ্গকে বিশ্লেষণ করে সুনির্দিষ্টভাবে ব্যাটে বল লাগার শব্দকে আলাদাভাবে শনাক্ত করবে।

বুধবার এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচ থেকেই এই প্রযুক্তি দেখতে পাচ্ছেন ক্রিকেট প্রেমীরা। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও ভারত।

অবশ্য এর আগে গত বিশ্বকাপেও এই প্রযুক্তি ছিল। এবার এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলও (এসিসি) প্রথমবারের মতো এই প্রযুক্তি ব্যবহার করছে এশিয়া কাপে।






মন্তব্য চালু নেই