মেইন ম্যেনু

এসিডিটিতে ভুগলে কি সাইট্রাস ফল খাওয়া এড়িয়ে যেতে হবে?

পাকস্থলীতে অতিরিক্ত এসিড উৎপন্ন হলেই এসিডিটির সমস্যা দেখা দেয়। এটি হতে পারে নির্দিষ্ট কোন ঔষধের প্রতিক্রিয়ায় যেমন- পেইন কিলার, স্ট্রেস, স্মোকিং, চর্বি ও মশলাযুক্ত খাবার খাওয়া এবং কখনো কখনো ইনফেকশনের কারণেও হয় যেমন- H-Pylori ইনফেকশনের জন্য। পেট ব্যথা, বমি, ক্ষুধা কমে যাওয়া, পেট ফাঁপা এবং বুক জ্বালা করা এসিডিটির লক্ষণ। কিছু খাবার এসিডিটির সমস্যাকে বাড়িয়ে তোলে। এসিডিটিতে ভুগলে সাইট্রাস ফল খাওয়া যাবে কিনা সে বিষয়ে বিশেষজ্ঞের মতামত জেনে নিই চলুন।

অনেকেই মনে করেন যে এসিডিটির সমস্যায় ভুগলে সাইট্রাস ফল খাওয়া উচিৎ নয়। মুম্বাই এর হোলিস্টিক পুষ্টিবিজ্ঞানী, ইন্টেগ্রেটিভ এবং লাইফস্টাইল মেডিসিন বিশেষজ্ঞ লূক কাউন্টিনহু বলেন এই ধারণাটি সত্যি নয়। এসিডিটির সমস্যায় ভুগলেও সাইট্রাস ফল খাওয়া যায়। সাইট্রাস ফল এসিডিক প্রকৃতির হলেও পাকস্থলীতে পৌঁছালে লালার সঙ্গে মিশ্রিত হয়ে ক্ষারীয় হয়ে যায়। তাই এই ধরণের ফলগুলো অম্লতার উপর হস্তক্ষেপ করেনা অথবা আপনার অবস্থা খারাপ করবেনা। আসলে সাইট্রাস ফল খেলে আপনার স্বাস্থ্যের অবস্থার উন্নতি হয় এবং এসিডিটির ঝুঁকি কমায়।

শুধু এটি নয়, সাইট্রাস ফলের প্রচুর স্বাস্থ্য উপকারিতা আছে। ইমিউনিটি বৃদ্ধি করা থেকে শিশুর উন্নয়নেও সাহায্য করে সাইট্রাস ফল। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ সাইট্রাস ফল খেলে শুধুমাত্র হজমেই সাহায্য করেনা বরং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং ঠান্ডা ও ফ্লু দ্রুত নিরাময়ে সাহায্য করে। প্রেগনেন্সির সময় কমলালেবু, মিষ্টি লেবু, জাম্বুরা ও কিউই এর মত সাইট্রাস ফল খেলে তা শুধু অ্যালার্জির ঝুঁকিই কমায় না বরং ফলিক এসিডের পরিমাণও বৃদ্ধি করে। যা ক্রমবর্ধমান ভ্রূণের উন্নয়নে সাহায্য করে। সাইট্রাস ফল ভিটামিন সি তে পরিপূর্ণ থাকে। যা একটি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি শুধু শরীর থেকে ক্ষতিকর ফ্রি র‍্যাডিকেলই দূর করে দেয়না বরং ত্বকের উন্নতি ঘটাতেও সাহায্য করে।

এসিডিটিতে ভুগলে ফলের জুস খাওয়া এড়িয়ে যাওয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ জুসে উচ্চমাত্রার চিনি ও নিম্নমাত্রার পুষ্টি উপাদান থাকে। তাই এমন সমস্যার ক্ষেত্রে ফলের জুস না খেয়ে ফল খান। মনে রাখবেন ফল খেয়ে উপকৃত হতে চাইলে আস্ত ফল খান। খালি পেটে ফল খাওয়া ভালো হলেও সাইট্রাস ফল খালিপেটে খাওয়া ঠিক নয়। সূর্যাস্তের পরেও ফল খাওয়া ঠিক নয়। এর ফলে ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে থাকবে।






মন্তব্য চালু নেই