মেইন ম্যেনু

এয়ার ফ্রেসনার খেয়ে নেশা করেন নারী!

নেশা, না রোগ! এক নারী জলের বদলে স্প্রে খেয়ে থাকেন। আর ওই স্প্রে ঘর ফ্রেস রাখার এয়ার ফ্রেসনার। সংবাদমাধ্যম টুডে বলছে, দুই সন্তানের জননী ২৭ বছরের ইভলিন জানিয়েছেন, স্প্রে খেতে না পেলে তার বেঁচে থাকাটা দুঃসহ হয়ে যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা ইভলিন সপ্তাহে ২০ ক্যান ফ্রেসনার স্প্রে খেয়ে ফেলেন।

বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, ঘরকে সুগন্ধে ভরপুর করতে যে স্প্রে ব্যবহার করা হয়, তাতে অনেক বিষাক্ত রাসায়নিক থাকে। যা খেলে অবধারিত ক্ষতির সম্ভাবনা।

কিন্তু ইভলিনের নেশা এমনই মারাত্মক যে তিনি দিনে অনন্ত তিনবার স্প্রে খেয়ে থাকেন। কখনও কখনও সরাসরি মুখেই স্প্রে করে খেয়ে নেন। আবার কখনও কাপে বরফ ঢেলে স্প্রে করে খেয়ে নেন। চিকিত্সকরা বহুবারই সতর্ক করে জানিয়েছেন যে, তার এই অভ্যেস প্রাণঘাতী হতে পারে। কিন্তু ওই সতর্কবাণীকে উপেক্ষা করেই নেশায় মশগুল ইভলিন।

মাই স্ট্রেঞ্জ অ্যাডিকশন নামে এক টেলিভিশন শো-তে ইভলিন তার এই নেশার কথা জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, একবার ভুল করে এয়ার ফ্রেসনার তিনি চেখে ফেলেন। ব্যস, তারপরই নেশায় জড়িয়ে পড়েন। মা মারা যাওয়ার পর নেশা তাকে পেয়ে বসে। ইভলিন গৃহবধূ নন। তিনি একটি আসবাবপত্র বিক্রয় কেন্দ্রের সেলস ম্যানেজার। তিনি তার পার্সে সবসময়ই স্প্রে রাখেন।






মন্তব্য চালু নেই