মেইন ম্যেনু

‘এ’ দলের নতুন লক্ষ্য ২৯০

প্রথম দুই ওয়ানডেতে রান পাননি তিনি। কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে ঠিকই জ্বলে উঠলেন সুরেশ রায়না। সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ওয়ানডেতে সুরেশ রায়নার সেঞ্চুরি ও সানজু স্যামসনের ফিফটিতে বাংলাদেশ ‘এ’ দলকে বড় লক্ষ্য বেঁধে দিয়েছে ভারতীয় ‘এ’ দল। বেঙ্গালুরুতে টস জিতে আগে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ২৯৭ রান করে স্বাগতিকরা। বাংলাদেশ ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বৃষ্টি নামলে ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে অতিথিদের নতুন লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪৬ ওভারে ২৯০ রান।

ভারতীয় ‘এ’ দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১০৪ রান করেন রায়না। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯০ রান আসে সানজু স্যামসনের ব্যাট থেকে। তৃতীয় উইকেটে ১১৬ রানের বড় জুটিও গড়েন রায়না-স্যামসন। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন শফিউল ইসলাম।

বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নামে ভারতীয় ‘এ’ দল। তবে শুরুতেই স্বাগতিক শিবিরে আঘাত হানেন শফিউল ইসলাম। দলীয় ৫ রানে মানাক আগারওয়ালকে (৪) লিটন দাসের ক্যাচ বানিয়ে বিদায় করেন এই পেসার। শুরুতেই আগারওয়ালের উইকেট হারানোর পর প্রতিরোধ গড়েন উন্মুখ চাঁদ ও সানজু স্যামসন। দ্বিতীয় উইকেটে ৮২ রানের জুটি গড়েন দুজন। তবে চাঁদকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন আরাফাত সানী। ৪১ রান করা চাঁদকে বোল্ড করেন বাংলাদেশ ‘এ’ দলের এই স্পিনার।

এরপর তৃতীয় উইকেটে সানজু স্যামসন ও সুরেশ রায়না মিলে ১১৬ রানের বড় জুটি গড়েন। সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন স্যামসন। তবে সেঞ্চুরি থেকে ১০ রান দূরে থাকতে তাকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন আল-আমিন হোসেন। স্যামসনকে বোল্ড করেন তিনি। ৯৯ বলে ১০ চার ও এক ছক্কায় ৯০ রান করেন স্যামসন।

দলীয় ২১৪ রানে কেদার যাদবকে সাজঘরে ফেরান নাসির হোসেন এবং দলীয় ২৫১ রানে গুরকিরাত সিং মানকে বিদায় করেন শফিউল। কিন্তু ষষ্ঠ উইকেটে রিশি ধাওয়ানের সঙ্গে ৪৫ রানের জুটি গড়ার পাশাপাশি সেঞ্চুরি তুলে নেন রায়না। ইনিংসের শেষ ওভারে রুবেলের বলে রায়না ফিরলেও কাজের কাজটা আগেই করে দিয়ে যান তিনি। ৯৪ বলে ১০ চার ও এক ছক্কায় ১০৪ রান করেন রায়না। ১৫ বলে ২৬ রান করে অপরাজিত থাকেন রিশি ধাওয়ান।

প্রথম দুই ম্যাচ শেষে সিরিজ ১-১ সমতায় আছে। আজ যে দল জিতবে, তারা সিরিজও নিজেদের করে নেবে।

বাংলাদেশ ‘এ’ দল : মুমিনুল হক, নাসির হোসেন, এনামুল হক বিজয়, রনি তালুকদার, লিটন কুমার দাস, সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকার, আরাফাত সানী, রুবেল হোসেন, আল-আমিন হোসেন ও শফিউল ইসলাম।

ভারত ‘এ’ দল: উন্মুখ চাঁদ (অধিনায়ক), মানাক আগারওয়াল, সুরেশ রায়না, কেদার যাদব, সানজু স্যামসন, কুলদীপ যাদব, কর্ণ শর্মা, রিশি ধাওয়ান, এস অরবিন্দ, ধাওয়াল কুলকার্নি ও গুরকিরাত সিং মান।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই