মেইন ম্যেনু

‘ওই ব্যাটা চুপ’

কে বললেন, ওই ব্যাটা চুপ। তিনি সামনে আসেন। সাহস থাকলে সামনে আসেন। যিনি এ কথা বলেছেন আই ওয়ান্ট টু সি হিম। এটি আদালতের এখতিয়ারবহির্ভূত কথা। এটি আদালত অবমাননার শামিল। যিনি এ কথা বলেছেন, তিনি আইনজীবীর ব্যানারে পোশাকধারী সন্ত্রাসী।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে বকশীবাজারে অবস্থিত কারা প্যারেড গ্রাউন্ডের মাঠে বিশেষ জজ আদালতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার শুনানি চলছিল। এ সময় বাদী হারুন অর রশীদকে আসামিপক্ষের আইনজীবীর জেরা করা শেষে কোনো এক আইনজীবীর ‘ওই ব্যাটা চুপ’ উক্তির পর বিচারক এসব কথা বলেন।

বিচারক আবু আহমেদ জমাদার বলেন, ‘যিনি এ বাক্য বলেছেন, তিনি পোশাকধারী একজন সন্ত্রাসী। এই সন্ত্রাসীদের বিচার একান্ত প্রয়োজন। সাহস থাকলে তিনি সামনে আসেন। এখানে এই সব লোকজন আসতে পারবেন না। এ ধরনের বাক্য কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না। এসব লোকদের এখন থেকে চিহ্নিত করা হবে।’

এ বিষয়ে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন আদালতে বলেন, ‘খালেদা জিয়ার আইনজীবী যারা এখানে এসেছেন, আমার মনে হয়, তাদের মধ্য থেকে এমন বাক্য কেউ উচ্চারণ করেননি। অন্য কেউ করে থাকতে পারেন।’ এ সময় বিচারক বলেন, ‘আপনাদের মধ্য থেকেই কেউ একজন করেছে। আমি আপনাদের দিক থেকেই ওই বাক্য শুনতে পেয়েছি।’

জবাবে বিএনপিপন্থী সব আইনজীবীর পক্ষ থেকে আদালতে ক্ষমা প্রার্থনা করেন মাহবুব উদ্দিন খোকন।






মন্তব্য চালু নেই