মেইন ম্যেনু

‘ওরা যমজ’ মায়ের প্রেরণায় সাফল্যের শীর্ষে

সাদ ও সাদিয়া ওরা যমজ ভাই-বোন। ‘মা’ সৈয়দা সাবিনা ইয়াসমিনের অপ্রতিরোদ্ধ প্রেরণায় ওরা উঠে এসেছে সাফল্যের চূড়ায়। এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল থেকে জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে সাদিয়া, অপরদিকে তাঁর ভাই সাদ গতবছরই একই সাফল্য নিয়ে উচ্চমাধ্যমিকে পড়ছে নটরডেম কলেজে।

জন্ম ওদের একই দিনে এক সাথে হলেও জীবন গড়ার ইচ্ছেটা একটু ভিন্ন।

জন্ম ওদের দেশের বাইরে (সৌদি আরব) হলেও, ছিল বাংলাদেশী বংশদ্ভুতের ছাপ। স্থায়ী ভাবে বাংলাদেশে ফিরে তাদের জীবনের নতুন অধ্যায়ের সূচনার সারথী ওদের মায়ের সাথে কথা হয় বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভের। তিনি জানান, সামাজিক প্রতিবন্ধকতার ঊর্ধ্বে উঠে সন্তানদের সাফল্য গাঁথার আদি কথা। সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, ‘ওরা যমজ ছিল তাই শুরুতেই আমার অনেক স্ট্রাগল (পরিশ্রম) করতে হয়েছে। যখন বাংলাদেশে স্থায়ী ভাবে ফিরে আসি তখন সামাজিক ও পরিবেশগত অনেক সমস্যাই আঁকড়ে ধরেছিল। আজকে ওদের সাফল্য আমারও সাফল্য এবং গর্ভের’।

আট বছর বয়সে দেশে ফিরে মায়ের ভাষাটা শিখতে বেশি সময় নিতে হয়নি যমজ এই ভাই-বোনের। ভাঙালি সংস্কৃতির সাথে খুব সহজেই মেশা হয়ে গেছে ওদের মায়ের অক্লান্ত মমতায়। নিজ মুখেই স্বীকার করে ওরা। স্বপ্নের ভীত যেখানে শুরু সেখানেই সন্তানদের পাশে ছিলেন সাবিনা ইয়াসমিন। দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন অনন্য নতুন কোন সামাজিক প্রতিবন্ধকতার বিপরীতে।






মন্তব্য চালু নেই