মেইন ম্যেনু

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার হার

ওয়ার্নের অভাবটা ভালোভাবেই টের পেলো অস্ট্রেলিয়া। সোমবার ত্রিদেশীয় সিরিজের পঞ্চম ম্যাচে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৪ উইকেটে হেরে গেছে তারা। ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে খেলতে পারেনি আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা ওয়ার্নার।

সেন্ট কিটসে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই অ্যারন ফিঞ্চের উইকেট হারায় অজিরা। প্রথম ওভারেই কোন রান না করে জেসন হোল্ডারের বলে আউট হয়ে ফিরে যান ফিঞ্চ। এরপর অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ওপেনার খাওয়াজার সাথে এক দারুণ জুটি গড়ে তুলেন। স্মিথ ও খাওয়াজার জুটি থেকে দলে যোগ হয় ১৭০ রান। কিন্তু ইনিংসের ৩৫ তম ওভারে স্মিথ দলীয় ১৭১ রানে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের বলে ক্যাচ আউট হলে তাদের এই জুটির সমাপ্তি ঘটে। স্মিথ ৯৫ বলে ৫টি চার ও ২টি ছয়ের সাহায্যে ৭৪ রান করেন।

এরপর দ্বিতীয় উইকেটে নামা জর্জ বেইলি ক্রিজের অপরাজিত ব্যাটসম্যান খাওয়াজার সাথে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু উসমান খাওয়াজা ব্যক্তিগত ৯৮ রানে ফিরে গেলে বেইলি ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যানই বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকে থাকতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত টিকে থাকা জর্জ বেইলি ৫৫ রান করে আউট হলে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৬৫ রান সংগ্রহ করে অজিরা।

অস্ট্রেলিয়ার দেওয়া ২৬৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করেতে নেমে দুর্দান্ত সূচনা করে দুই ওপেনার জনসন চার্লস ও আন্দ্রে ফ্লেচার। দলীয় ৭৪ রানে জেমস ফ্কনারের বলে ২৭ রান করে ফিরে যান ফ্লেচার। আর অ্যাডাম জাম্পার বলে ৪৮ রান করে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরে যান ওপেনার চার্লস।

এরপর ফ্লেচারের পর নামা ড্যারেন ব্রাভোর সাথে জুটি গড়েন দ্বিতীয় উইকেটের পর ব্যাট করতে নামা সামুয়েলস। তাদের জুটি থেকে দলে যোগ হয় ৮২ রান। কিন্তু ব্রাভো ৩০.৫ ওভারে দলীয় ১৬৭ রানে জাম্পার ওভারে ক্যাচ আউট হয়ে ফিরে গেলে তাদের এ জুটির সমাপ্তি ঘটে।

এরপর ব্যাট করতে নামেন উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান দীনেশ রামদিনকে সাথে নিয়ে ৭৩ রানের জুটি গড়ে দলকে বিপর্যয় থেকে তুলে আনেন স্যামুয়েলস । ইনিংসের ৪১ তম ওভারে দলীয় ২৪০ রানে রানআউট হয়ে ফিরে যান স্যামুয়েলস। ৮৭ বলে ৮টি চার ও ৪ টি ছয়ের সাহায্যে ৯২ রানের একটি দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন তিনি। এরপর দলের লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানরা দলকে জয়ের দিকে নিয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই