মেইন ম্যেনু

কক্সবাজারে নিজ সংগঠনের নেতার উপর হামলা : শাস্তির দাবি চবি ছাত্রলীগের

শিবিরের হামলায় আহত কক্সবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল ইসলামের মোস্তাককে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করার পর, আজ সন্ধ্যায় চবি ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর টিপু , সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী সুজন ও চবি ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ আহত কক্সবাজার কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল ইসলামের মোস্তাকের অবস্থা পরিদর্শন করেন।

উল্লেখ্য যে, গতকাল রাত আটটার দিকে কক্সবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক রাজিবুল ইসলাম মোস্তাক শহরের প্রধান সড়কের ভোলাবাবুর পেট্রল পাম্প এলাকা থেকে পায়ে হেঁটে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের দিকে যাচ্ছিলেন। হাসপাতাল সড়কের খানকা মসজিদের সামনে গেলে ছয় শিবিরকর্মী তাঁকে লাঠি দিয়ে বেদম পিটুনি দিতে থাকেন। একপর্যায়ে শিবির ক্যাডারদের লাঠির আঘাতে তাঁর মাথা ফেটে রক্ত বেরোতে থাকে। এরপর শিবির ক্যাডাররা ধারালো অস্ত্র দিয়ে মোস্তাকের ঠোঁট ও ডান পায়ের রগ কেটে দিয়ে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আহত রাজীবকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার কাকারা এলাকার নজিবুল ইসলামের ছেলে আহত রাজিবুল ইসলাম মোস্তাক ওই কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।

এদিকে পরিদর্শন কালে, চবি ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর টিপু ও সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী সুজন, কক্সবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক রাজিবুল ইসলাম মোস্তাকের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন এবং জড়িত জামাত-শিবিরের ক্যাডারদের দ্রুত খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। পাশাপাশি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতার ঘোষণা দেন।






মন্তব্য চালু নেই