মেইন ম্যেনু

কক্সবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় আইনজীবী-শিক্ষকসহ নিহত ৩

cox pic_02-06-2016মোঃ আমান উল্লাহ, কক্সবাজার ॥ কক্সবাজার শহরতলীর লিংরোডে সৌদিয়া বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে আইনজীবি ও মাদ্রাসা শিক্ষকসহ ৩ জন নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আরো অন্তত ২জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লিংক রোডস্থ বীচ পাবলিক স্কুলের সামনে এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, কক্সবাজার জেলা আইনজীবি সমিতির সদস্য এডভোকেট হুমায়ুন আজাদ (৩২), হাশেমিয়া মাদ্রাসার কম্পিউটার শিক্ষক মফিজুর রহমান ও একই মাদ্রাসার ছাত্র তৌহিদুর রহমান (১৮)।

বীচ পাবলিক স্কুলের পরিচালক এজিএম ফেরদৌস জানিয়েছেন, সকালে সিএনজি যোগে রামুর কলঘর এলাকা থেকে কক্সবাজার যাচ্ছিলেন এডভোকেট হুমায়ুন আজাদ সহ ৫জন যাত্রী। লিংক রোড এলাকায় চট্টগ্রামগামী দ্রুতগতির সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাথা থেতলে গিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান এডভোকেট হুমায়ুন আজাদ। এসময় আরও ৪জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হলে হাসপাতালে কক্সবাজার হাশেমিয়া কামিল মাদ্রাসার ছাত্র হাফেজ তৌহিদুর রহমানকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন এবং শিক্ষক মফিজুর রহমানের অবস্থা আশংকা জনক হওয়া তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। বর্তমানে আহতদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, সকালে কক্সবাজার শহর থেকে সৌদিয়া পরিবহনের বাসটি চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হওয়ার পথে প্রথমে জেলগেট এলাকায় একজন সাইকেল আরোহীকে ধাক্কা দেয়। তার নাম সাকার উদ্দিন (৩২)। সে কালু ফকির পাড়া মো: মিয়া হোছনের ছেলে বলে জানা গেছে।

এদিকে সাকার উদ্দিনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। অপর আহত মিজান ও সাহাব উদ্দিন (২৫) বর্তমানে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন। সিএনজি ড্রাইভারের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

নিহত তৌহিদের বন্ধু কাদের ও নয়ন জানান, নিহত তৌহিদুর রহমান এবারের দাখিল পরীক্ষায় ৩.৯৪ পেয়েছেন। সে হাশেমিয়া মাদ্রাসায় ভর্তি হওয়ার জন্য সকালে মাদ্রাসায় আসছিলেন।

কক্সবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে গাড়িটি পালিয়ে যাওয়ার পথে বাংলাবাজার এলাকায় স্থানীয় লোকজন বাসটি আটক করে পুলিশকে সোপর্দ করেছে।






মন্তব্য চালু নেই