মেইন ম্যেনু

কদমতলীতে বাসায় ঢুকে কিশোরীকে কুপিয়ে খুন

রাজধানীর কদমতলীতে সোহেলী নামে এক কিশোরীকে কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। এই ঘটনায় তার মা ডলি এবং ছোট বোন সাহারা গুরুতর আহত হয়েছেন। স্থানীয়রা ঘটনাটিকে ডাকাতি বলে জানিয়েছেন। তবে ওই বাসা থেকে কোনো কিছু খোয়া যাওয়ার আলামত পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কদমতলীর দক্ষিণ দনিয়ার মিনারবাগের ১৪৯২ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই বাড়ির গৃহকর্তা আব্দুল হান্নান ইতালি প্রবাসী। গত মাসের ১৯ তারিখে তিনি দেশে ফেরেন। তারা গত ৩ মাস আগে এই এলাকাতে আসেন। রাত ৮টার দিকে স্থানীয়রা ৬ তলা ওই বাড়ির দ্বিতীয়তলা থেকে ‘ডাকাত’ ‘ডাকাত’ চিৎকার শুনে ঐ বাড়ির দিকে দৌড়ে যান। কিন্তু তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই দুর্বৃত্তরা পারিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় গৃহকর্ত্রী ডলি এবং তার ছোট মেয়ে সাহারাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বড় মেয়ে সোহেলীর। সোহেলী স্থানীয় একটি স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। সাহারা নার্সারির ছাত্রী।

তবে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের একটি সূত্র জানায়, প্রাথমিকভাবে তারা ধারণা করছেন দুইজন দুর্বৃত্ত হামলা করেছে। তবে ওই বাসা থেকে কোনো কিছু খোয়া যাওয়ার আলামত পাননি তারা।

এদিকে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় থমকে দাঁড়ানো কিছু মানুষের উপরও আক্রমণ করে। এতে জারাল উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি আহত হন। দুর্বৃত্তরা আরো কয়েকজনকে চাপাতি দিয়ে আঘাত করেন। জারাল উদ্দিন বিআইডাব্লিউটিসির প্রকৌশলী। তাকেও ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘিরে রেখেছে। সিআইডির ক্রাইম সিন ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে।

কদমতলী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আহম্মেদ একজন নিহত এবং দুইজন আহতের ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই