মেইন ম্যেনু

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে বাল্য বিবাহের অপরাধে

কনের বাবা ও বর সহ ১১জনের বিভিন্ন মেয়াদে জেল-জরিমানা

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ৭ম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী কে দু’স্ত্রীর সাথে বিবাহ বিচ্ছেদকারী আরিফুল ইসলাম (৩০)নামে এক ব্যক্তির সাথে বিবাহ দেবার অপরাধে ওই ছাত্রীর (কনে) বাবা, বর, কাজী,স্বাক্ষী ও ওই বিবাহে মদদদাতা দুই যুবক সহ মোট ১১জনকে আটকের পর বৃহস্পতিবার দুপুরে বিভিন্ন মেয়াদে তাদের জেল ও জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

পুলিশ ও ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা গেছে, আক্কেলপুর উপজেলার রুকিন্দিপুর ইউনিয়নের পুর্ব মাতাপুর গ্রামের কৃষক আব্দুর রশিদ স্থানীয় ২যুবকের ভয়ভীতিতে প্রভাবিত হয়ে ইসলামপুর দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণিতে পড়–য়া তার কিশোরী মেয়ে রুনা লায়লা (১৩) কে একই গ্রামের আব্দুস ছামাদের ছেলে – বর আরিফুল ইসলামের সাথে মঙ্গলবার মধ্যরাতে বিবাহ দেন ।

এ বাল্য বিবাহের খবর জানাতে পেরে পুলিশ বুধবার সন্ধ্যায় ওই গ্রাম থেকে বর আরিফুল ইসলাম, মেয়ের (কনে)বাবা আব্দুর রশিদ (৪৮)ও ওই বিয়ের স্বাক্ষী একই গ্রামের মৃত গাজিউল ইসলামের ছেলে শামিম (২৫) কে এবং ওই রাতেই ( বুধবার) একই উপজেলার রুকিন্দিপুর গ্রাম থেকে বিয়ের রেজিষ্টার (কাজী) এ্নামুল হক (৫৪) ও নলডংাগা গ্রাম থেকে সহকারী রেজিষ্টার (কাজী) ইদ্রিস আলী(৫০)কে আটক করে।

এ ছাড়াও বৃহস্পতিবার সকালে ওই এলাকায় দ্বিতীয় দফা অভিযান চালিয়ে পুলিশ পুর্ব মাতাপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে(বিয়ের উকিল) সবুজ (২৫), বিয়ের স্বাক্ষী- আব্দুল মুমিন (২৩) ও নুরুন নবী (২৪). বিয়ে পড়ানো মাওলানা স্থানীয় মসজিদের ঈমাম আব্দুল গাফফার (২৪) এবং রিকো (২৫) ও মিজান (২০) নামে এ বাল্য বিবাহের দুই মদদদাতা কে আটক করে ।

পুলিশ আটককৃতদের আক্কেলপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট গোলাম মোঃ শাহনেওয়াজের নিকট হাজির করলে তিনি ভ্র্যাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেয়ের বাবা, বর, সহকারী কাজী ও বিয়ের ২স্বাক্ষীকে ১মাস করে ও বিয়েতে মদদদানকারী উল্লেখিত দুজনকে ২মাসের কারাদন্ড ও বাকি ৫জনের ১হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন।বিকালে দন্ডিতদের জয়পুরহাট জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই