মেইন ম্যেনু

কফি পানে লাভ করুন ৭টি বিস্ময়কর স্বাস্থ্য উপকারিতা

সকালে ঘুম থেকে উঠে এক কাপ কফি না হলে অনেকেরই চলে না। এই কফিকে বেশিরভাগ মানুষ খারাপ খাবারের তালিকায় ফেলেন। অঙ্কেই মনে করেন কফি খাওয়া ভাল নয়। কিন্তু আপনি জানেন কি কফির আছে কিছু বিস্ময়কর স্বাস্থ্য উপকার! ইব্লগফা.কম থেকে জানা যায় কফিতে অ্যান্টিঅক্সিডেণ্ট এবং কিছু পুষ্টি উপাদান আছে যা আপনার স্বাস্থ্যের উপর অমূল্য প্রভাব ফেলে থাকে। কফির এই দুটি উপাদান অনেকগুলো রোগ প্রতিরোধ করে থাকে। lifehack.org, eblogfa.com, consumerhealthdigest.com কফির কিছু স্বাস্থ্যগত উপকারিতার কথা জানিয়েছে।

১। ওজন কমাতে সাহায্য করে
কিছুটা অবাক শোনালেও এটি সত্য। স্প্যানিস পরিসংখ্যানে দেখা গিয়েছে যেসব ক্রীড়াবিদ ব্যায়াম করার আগে ১২ আউন্স কফি পান করে থাকে, তারা শতকরা ১৫ ভাগ ক্যালরি পোড়াতে সক্ষম হয়। এমনকি আপনি যদি নিয়মিত ব্যায়াম না করেন কিন্তু প্রতিদিন দুই কাপ কফি পান করেন তবে শতকরা ১০ থেকে ২০ ভাগ পর্যন্ত ক্যালরি পোড়াতে সক্ষম হবেন।

২। দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে থাকে
মানসিক চিন্তা কমিয়ে দেহের শক্তি বৃদ্ধিতে কফির জুড়ি নেই। কফিতে ক্যাফেইন নামক একটি উপাদান আছে যা মানসিক অস্থিরতা, দুশ্চিন্তা দূর করে মানসিক প্রশান্তি এনে দেয়। এমনকি এটি দেহের শক্তিও বৃদ্ধি করে থাকে।

৩। রক্ত সঞ্চালন বজায় রাখা
জাপানিজ এক সমিক্ষায় দেখা গেছে প্রতিদিন পাঁচ আউন্স কফি দেহের রক্ত সঞ্চালন শতকরা ৩০ ভাগ বৃদ্ধি করে থাকে। রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ ঠিক রেখে দেহে রক্ত চলাচল সচল রাখে।

৪। ক্যান্সার প্রতিরোধ
Rutgers University গবেষণায় দেখেছেন ক্যাফেইন স্কিন ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে। আবার আরেক গবেষণায় দেখা গেছে ক্যাফেইন দেহে মেলানোমা বৃদ্ধি হ্রাস করে থাকে।

৫। স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে
কফি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে থাকে। প্রতিদিন দুইবার আট আউন্স করে কফি পান করুন, এটি আপনার দীর্ঘমেয়াদি স্মৃতিশক্তিতে বৃদ্ধিতে সাহায্য করে থাকে।

৬। টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস

এই ডায়াবেটিস প্রায় সবার মাঝে দেখা দেয়। এটি দেহের প্রয়োজনীয় ইনসুলিন উৎপাদনে বাধা দিয়ে থাকে। নিয়মিত কফি পান এই ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভবনা কমিয়ে থাকে শতকরা ২৪-৫০ ভাগ।

৭। লিভার সুস্থ রাখে
ক্যান্সার প্রতিরোধ করার পাশা পাশি কফি আরও অনেক রোগ প্রতিরোধ করে থাকে। এমনকি হেপাটাইটিস এবং ফ্যাটি লিভারের মত রোগও প্রতিরোধ করে থাকে। এমনকি কফি লিভারের সিরোসিস হওয়া থেকে রক্ষা করে লিভারকে সুস্থ রাখে। তাই যারা নিয়মিত কফি পান করে তাদের লিভারের রোগ হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।






মন্তব্য চালু নেই