মেইন ম্যেনু

কমেছে পেঁয়াজের ঝাঁঝ, বেড়েছে রসুনের দাম

রাজধানীর খুচরা বাজারগুলোতে কয়েকদিন আগেও প্রতিকেজি যে রসুন বিক্রি হতো ১১০১-২০ টাকায়, তা বর্তমানে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৩৫-১৪৫ টাকায়। প্রতিকেজি রসুনের দাম বেড়েছে ২৫ টাকা। দেশি রসুনের মজুদ কমে যাওয়া এবং চায়নায় দাম বাড়ার কারণে দেশে রসুনের দাম বেড়েছে।

পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, চায়না রসুন প্রতিকেজি পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ১২৫-১৩০ টাকায়। আর দেশি রসুনের মৌসুম শুরু হলে দাম কমবে বলে জানিয়েছেন তারা।

শ্যামবাজারের পেঁয়াজ-রসুনের পাইকারি প্রতিষ্ঠান রুনা বাণিজ্যালয়ের সত্ত্বাধিকারী মোহাম্মদ ইলিয়াস বাংলামেইলকে জানান, চায়না হোয়াইট রসুনের দাম সামান্য বেড়েছে।

রসুনের দাম বাড়লেও কমেছে পেঁয়াজের দাম। দুই একদিন আগে যে দেশি পেঁয়াজ প্রতিকেজি বিক্রি হতো ৩০-৪০ টাকায় তা কমে বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩৫ টাকায়। পাশাপাশি আমদানি করা প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকায়।

এদিকে রাজধানীর কাঁচাবাজারগুলোতে শীতকালীন পণ্যের দাম ক্রেতাদের হাতের নাগালেই রয়েছে। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে ক্রেতা-বিক্রেতার সঙ্গে আলাপকালে এমনটিই জানা গেছে।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, স্বামীবাগ, কাপ্তানবাজার, সেগুনবাগিচা, শান্তিনগর বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, মানভেদে প্রতি কেজি বেগুন ২৫-৩০ টাকায়, সাদা গোলাকার বেগুন ৩০-৩৫ টাকায়, কাঁচামরিচ ৪০-৫০ টাকায়, টমেটো ৩০-৩৫ টাকায়, গাজর ৩০-৩৫ টাকায়, শসা ২০-২৫ টাকায়, করলা ৩০-৩৫ টাকায়, ঝিঙে ৩০-৩৫ টাকায়, পটল ৩০-৩৫ টাকায়, কাকরোল ২৫-৩৫ টাকায়, ঢেঁড়স ২৫-৩০ টাকায়, উচ্ছে ৩০-৩৫ টাকায়, চিচিঙ্গা ৩০-৪০ টাকায়, পেঁপে ২০-৩০ টাকায়, জলপাই ২০-৩০ টাকায়, ধুন্দুল ৩০-৩৫ টাকায়, বরবটি ৩৫-৪০ টাকায়, কচুর ছড়ি ২৫-৩৫ টাকায়, লতি ২৫-৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

‌বাজারে সাদা গোল আলু বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকায়। এ ছাড়া প্রতিকেজি নতুন গোল আলু ৪০ টাকা থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে প্রতিটি বড় লাউ ৩৫ টাকায় এবং ছোট লাউ ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া প্রতিটি ছোট কুমড়া ৪০-৪৫ টাকা এবং বড় কুমড়া ৬০-৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

খুচরা বাজারে ডিমের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতি হালি ব্রয়লার মুরগির ডিম ৩৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি হালি হাঁসের ডিম ৪২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাইকারি বাজারে ব্রয়লার মুরগির একশ ডিম ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া হাঁসের ডিম বিক্রি হচ্ছে ৯৫০ টাকায় (একশ)।

বাজারে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি (সাদা) বিক্রি হচ্ছে ১৩৫-১৪০ টাকা। ব্রয়লার মুরগি (লাল) ১৪০-১৪৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। বাজারে গরুর মাংসের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতিকেজি গরুর মাংস ৩৮০ টাকা থেকে ৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতিকেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৫৫০-৬২০ টাকায়।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই