মেইন ম্যেনু

কম্পিউটারের জায়গা নেবে মাইক্রোসফট লুমিয়া ৯৫০ এবং ৯৫০ এক্সএল

মাইক্রোসফটের বহু প্রতীক্ষিত দুটো স্মার্টফোন ভারতের বাজারে ছাড়া হয়েছে। একটি লুমিয়া ৯৫০ এবং অপরটি ৯৫০ এক্সএল। সম্পূর্ণ নতুন প্রযুক্তিতে তৈরি হয়েছে ফ্ল্যাগশিপ ফোন দুটি। ব্যবহারকারীদের প্রোডাক্টিভিটি বৃদ্ধিতে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে নির্মাতা। ফোন দুটোকে ডেস্কটপ কম্পিউটার বা ল্যাপটপের বিকল্প বলে তুলে ধরা হয়েছে।

লুমিয়া ৯৫০-এর স্পেসিফিকেশন দারুণ। পর্দা ৫.২ ইঞ্চির। ব্যাটারি ৩০০০এমএএইচ শক্তির। প্রসেসর কোয়ালকম হেক্সা কোরের এমএসএম৮৯৯২ স্ন্যাপড্রাগন ৮০৮। ডুয়াল কোরের ১.৮২ গিগাহার্জের কর্টেক্স-এ৫৭ এবং কোয়াড কোর ১.৪৪ গিগাহার্জের কর্টেক্স-এ৫৩ আদ্রিনো ৪১৭ গ্রাফিকস দেওয়া হয়েছে। ৩ জিবি র‍্যাম আর অভ্যন্তরে ৩২ জিবি স্টোরেজ রয়েছে। মাইক্রোএসডি কার্ড স্লটও রয়েছে।

ওদিকে, লুমিয়া ৯৫০ এক্সএল-এর পর্দাটি লুমিয়া ৯৫০-এর চেয়ে আধা ইঞ্চি বেশি। কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন এমএসএস৮৯৯৪ স্ন্যাপড্রাগন ৮১০ প্রসেসরটি অক্টা কোর।। এতে আছে কোয়াড কোর ১.৫ গিগাহার্জের কর্টেক্স-এ৫৩ এবং কোয়াড কোর ২ গিগাহার্জের কর্টেক্স-এ৫৭। আরো আছে আদ্রিনো ৪৩০ গ্রাফিক্স। ৩ জিবি র‍্যাম এবং ৩২ জিবি অভ্যন্তরীন স্টোরেজ। আছে মাইক্রোএসডি কার্ড।

লুমিয়া ৯৫০ এবং লুমিয়া ৯৫০ এক্সএল-এর পিক্সেল ডেনসিটি যথাক্রমে ৫৬৪ পিপিআই এবং ৫১৮ পিপিআই। দুটোর ক্যামেরা একই। পেছনেরটি ২০ মেগাপিক্সেলের সঙ্গে কার্ল জিস লেন্স। অপিটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেসন, অটোফোকাস এবং ট্রিপল লেড ফ্ল্যাশ। সামনের ক্যামেরাটি ৫ মেগাপিক্সেল।
সূত্র : সি নেট






মন্তব্য চালু নেই