মেইন ম্যেনু

কলকাতায় দেহদানের ইচ্ছা থেকে সরে গেলেন তসলিমা!

মৃত্যুর পরে কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে দেহদানের ইচ্ছা থেকে সরে গেছেন বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

শুক্রবার ফেসবুকে এমনই জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার ফেসবুকে তসলিমা নাসরিন জানিয়েছেন, যখন তিনি কলকাতায় ছিলেন, সেই সময় মরণোত্তর দেহদানের বিষয়ে একটি সংগঠনের সঙ্গে তার চুক্তি হয়েছিল যে, মৃত্যুর পর ওই সংগঠনের পক্ষে তার দেহ কলকাতা মেডিকেল কলেজে পৌঁছে দেওয়ার জন্য।

কিন্তু, শেষ পর্যন্ত ওই ব্যবস্থা সম্ভব হবে কিনা, সেই বিষয়ে হয়তো এখন সংশয়ে রয়েছেন তসলিমা নাসরিন৷ যে কারণে হয়তো, শুক্রবার ফেসবুকে তসলিমা নাসরিন বলেছেন, যেহেতু আমাকে কলকাতায় আর যেতে দেওয়া হয় না, সেহেতু সে আশায় জলাঞ্জলি দিতে হচ্ছে৷ যে শহর আমাকে জীবিত যেতে দিচ্ছে না, সে শহরে আমাকে মরলেও যেতে দেবে না৷ অথবা দিলেই বা যাব কেন? আমার বুঝি অভিমান হয় না?

একই সঙ্গে অভিমানী তসলিমা বলেছেন, মরণোত্তর দেহদানটা তাই এমনভাবে করছি যে, যে শহরেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করব, সেই শহরের হাসপাতালে দেহটা দেওয়া হবে৷ দিল্লিতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলে এইমসে৷ নিউইয়র্কে করলে বুথ মেমোরিয়াল বা বেলভিউয়ে৷ মেডিকেল রিসার্চের কাজে মৃতদেহের প্রয়োজন তো পড়েই৷






মন্তব্য চালু নেই