মেইন ম্যেনু

কলম্বিয়া সরকার ও ফার্কের মধ্যে ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তি

কলম্বিয়ার সরকার ও বামপন্থি বিদ্রোহী গ্রুপ ফার্ক ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তিতে পৌঁছেছে। এর মধ্য দিয়ে দেশটিতে সরকার ও ফার্কের মধ্যে পাঁচ দশকের গৃহযুদ্ধের সমাপ্তি ঘটল। ওই যুদ্ধে হাজার হাজার মানুষ মারা যায়।

চার বছরের দুরূহ আলোচনা শেষে বুধবার কিউবায় দুই পক্ষ চূড়ান্ত সমঝোতার ঘোষণা দেয়। এই চুক্তির আওতায় বিদ্রোহীরা অস্ত্র সমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাবে।

কিউবার রাজধানী হাবানায় দেশটির কূটনীতিক রডলফো বেনিতেজের উপস্থিতিতে কলম্বিয়া সরকার ও ফার্ক এক যৌথ বিবৃতিতে বলে, ‘কলম্বিয়া সরকার এবং ফার্ক এই ঘোষণা দিচ্ছে যে, আমরা চূড়ান্ত, পূর্ণ ও নির্দিষ্ট মতৈক্যে পৌঁছেছি… লড়াই শেষ করা এবং একটি স্থিতিশীল ও টেকসই শান্তি প্রতিষ্ঠায়। আমরা কলম্বিয়ায় আর কোনো লাশ দেখতে চাই না।’

এই চুক্তি কার্যকর হবে কি না, তা নির্ধারণ করবে কলম্বিয়ার জনগণ। এ বিষয়ে আগামী ২ অক্টোবর দেশটিতে একটি গণভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এ বিষয়ে এক টেলিভিশন বার্তায় কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস বলেন, ‘কলম্বীয় : সিদ্ধান্ত এখন আপনাদের হাতে। নিজেদের ভবিষ্যতের চাবি এর আগে কখনো আমাদের নাগরিকদের হাতে পৌঁছায়নি। আজ হৃদয়ের অন্তঃস্থল থেকে বলতে পারি যে- আমি আপনাদের দেওয়া আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করেছি।’

হাভানায় বিবৃতি শেষে ফার্কের পক্ষে শান্তি আলোচক ইভান মারকুয়েজ বলেন, ‘সব যুদ্ধের মধ্যে সবচেয়ে সুন্দরটি আমরা জিতেছি। অস্ত্র নিয়ে ‍যুদ্ধ শেষ। এখন সামনে এগিয়ে যাওয়ার পালা।’

উল্লেখ্য, এর আগে গত জুনে দুই পক্ষ অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দিয়েছিল।






মন্তব্য চালু নেই