মেইন ম্যেনু

কলারোয়ার হেলাতলায় হতদরিদ্রদের কার্ড বিতরণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ

জুলফিকার আলী, কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ কলারোয়ায় হতদরিদ্র ব্যক্তিদের ভিজিএফ কার্ড(১০টাকা কেজির চাউল) বিতরণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসে দেওয়া অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে,কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আসাদ হোসেন নিজের পরিচিত লোকদের নামে এ কার্ড বিতরণ করেছে।

যাবা কৃষি কার্ড, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, ভিজিডি ৩০কেটি চাউলের কার্ড রয়েছে তাদের নামে হতদরিদ্রদের কার্ড দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে উত্তর দিগং গ্রামের নুর ইসলাম, আজিজার সরদার, মরিয়ম, আনোয়ার আলী, কাজী সাইদুর রহমান, সাজু সরদার, ইজাহার আলী গাজী, আব্দুল আলিম, হাফিজুল গাজী, আলাউদ্দিন, মিজানুর রহমান, রহমান গাজী, আকবর আলী দায়, হামু হোসেন, ওলিয়ার রহমান, রাবেয়া বিবি, লিপি বেগম, আঃ রহমান মুফতি, সাদেক আলী ঢালী, মিনারা বিশ্বাস, কামরুল মোল্যা, আঃ ছালাম, জামসেদ সরদার, আরুনা বেগম, আঃ আলিম বয়স্ক ভাতা, কৃষি কার্ড, বিধবা ভাতা, ভিজিডি কার্ড ৩০কেজি চাউলের কার্ড,প্রভাবশালী ও ঈদ বোনাস কার্ডের চাউল পেয়েছে। অথচ ওই ৪নং ওয়ার্ডের নিরহ সাধারণ মানুষ আফসার আলী গাজী, জয়নল মুফতি, আবুল কালাম গাজী, সাহানারা খাতুন, পারভিন খাতুন, ফিরোজা বেগম, নজরুল দফাদার, রাশিদা খাতুন, ফারুক মোল্যা, কাজী জাকির হোসেন, পাতাসি বেগম, আয়নদ্দিন ঢালী, আঃ হোসেন, আঃ ওহাব, শফিকুল ইসলাম, ছাত্তার গাজী, নজরুল ইসলাম, নাসিমা বেগম, ইসলাম আলী, তানজিলা বেগম, হাফেজ উদ্দীন সরদার, আকবর আলী বিশ্বাস, সিরাজুল দায়, অজিত বিশ্বাস, মাজিদা খাতুন একটিও কার্ড পায়নি।

যারা কার্ড পাওয়ার যোগ্য তাদের মধ্যে বিতরণ না করে প্রভাবশালী ও একাধীক কার্ড পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসী তদন্ত পূর্বক প্রভাবশালীদের কার্ড বাতিল করে অসহায় মানুষদের মধ্যে বিতরণ করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই