মেইন ম্যেনু

কলারোয়ায় অনৈতিক কাজে লিপ্ত’র অভিযোগ, শিক্ষিকা জেল হাজতে

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে এক শিক্ষিকাকে থানা পুলিশ আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে কলারোয়া পৌর সদরে ঝিকরা গ্রামে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পৌর সদরের মুরারীকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কামাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে মির্জাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা শাহানারা খাতুনের সাথে অনৈতিক সম্পর্ক চালিয়ে আসছে। প্রতি শুক্রবার শিক্ষক কামাল হোসেনের ঝিকরা বাড়িতে শিক্ষিকা শাহানারা খাতুন রাত যাপন করে। এলাকায় অনেকদিন ধরে তাদের অনৈতিক কাজের ব্যাপারে কানাঘুষা চলে আসছে। এমনকি অনেকেই তাদের ওই কাজের প্রতিবাদও করেছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
এরই মধ্যে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তারা দু’জন কামাল হোসেনের ঘরে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হলে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে থানা পুলিশকে খবর দেয়।
পরে পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে শিক্ষিকা শাহানারা খাতুনকে আটক করে। এ সময় ঘটনার নায়ক সুচতুর শিক্ষক কামাল হোসেন পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় শনিবার কলারোয়া থানায় পুলিশ আইনের ৩৪ ধারায় শিক্ষক কামাল হোসেনকে পলাতক দেখিয়ে এবং শিক্ষিকা শাহানারা খাতুনকে আটক দেখিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করে।
এদিকে, দুই শিক্ষককের এমন অবক্ষয়ে কলারোয়ার সর্বস্তরের মানুষ ধিক্কার জানিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই