মেইন ম্যেনু

কলারোয়া প্রেসক্লাবে কুশোডাঙ্গা হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষকের সংবাদ সম্মেলন

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় কুশোডাঙ্গা আর্দশ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আখতারুজ্জামান ও তার স্ত্রী সহকারী শিক্ষিকা নাজমুন নাহারকে অভিযোগ করে সংবাদ প্রকাশের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।
রোববার বিকালে কলারোয়া প্রেসক্লাবে উপজেলার পারিখুপি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা জাহানারা খাতুনের বিরুদ্ধে প্রধান শিক্ষক আখতারুজ্জামান এ সংবাদ সম্মেলন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে জানান, “শিক্ষিকা জাহানারা খাতুনের বিরুদ্ধে তাদের দুই জনের প্ররোচনায় ইমান আলী বাদী হয়ে উক্ত শিক্ষিকার বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা আদালতে মামলাসহ তার স্কুলে যাওয়া আসার পথে হুমকি ধামকি ও অমর্যদাকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হয় ” এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও কাল্পনিক। তাদের দীর্ঘদিনের অর্র্জিত সম্মান,সামাজিক মর্যদা ও সুনাম নষ্ট করার জন্য প্রকাশিত সংবাদে এ ধরনের অভিযোগ করা হয়েছে।
তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ওই মিথ্যা অভিযোগে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।
তিনি পারিখুপি স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও দীর্ঘ ১৮ বছর সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তার সময়ে ওই শিক্ষিকা জাহানারা খাতুন নিয়োগ প্রাপ্ত। দীর্ঘ ১৮ বছর সভাপতির দায়িত্ব থাকা কালীন তার বিরুদ্ধে এ ধরনের কোন অভিযোগ নেই বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান।
প্রকৃত ঘটনা শিক্ষিকা জাহানারা খাতুন গত ১১ অক্টোবর ১ম শ্রেণির আসমাউল হুসনা,ইসমাইল ও জান্নাত নামে ৩ ছাত্র-ছাত্রীর শ্রেণি কক্ষে মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে। এ ঘটনায় আহত ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকসহ ৩০ জন গ্রামবাসি ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায়। এ সত্য ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে কুট কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে।
তাই তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সাংবাদিক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সরেজমিনে গিয়ে প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটন করে ওই শিক্ষিকার দৃষ্টান্তমুলক শান্তির দাবি জানান।






মন্তব্য চালু নেই