মেইন ম্যেনু

পেছাবে ভর্তির সময়

কলেজে ভর্তির ফল আজই : শিক্ষাসচিব

একাদশ শ্রেণীতে অনলাইনে ভর্তির ফল আজই প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা সচিব মো. নজরুল ইসলাম খান। ভর্তির সময় পেছানো হবে বলেও জানান তিনি।

সচিবালয়ে রবিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সচিব এ কথা জানান। তিনি বলেন, ‘সমস্যা সমাধানের জন্য বিশেষজ্ঞরা আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন। তাদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, তারা বলেছেন আজকের মধ্যে ফল জানানো সম্ভব হবে।’

ভর্তির সময় পুননির্ধারণ করা হবে কি না জানতে চাইলে সচিব বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে ইতোমধ্যে বলেছি। ভর্তি রিসিডিউল তো করতেই হবে।’

নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমার পরিকল্পনায়ই অনলাইনে ভর্তির প্রক্রিয়াটি হচ্ছে। ভুল-ভ্রান্তি যা আছে এর সব দায় আমার। আপনারা আমার বিরুদ্ধে লিখতেও পারেন।’

গত ২৫ জুন রাতে একাদশে ভর্তির প্রথম তালিকা প্রকাশের কথা ছিল। শনিবার থেকে শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম শুরুর কথা। কিন্ত কারিগরি জটিলতার জন্য রবিবার দুপুর পর্যন্ত ভর্তির ফলই প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি।

এর আগে তিন দফা সময় নির্ধারণ করেও ফল প্রকাশে ব্যর্থ হয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের তথ্যানুযায়ী, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় ওয়েবসাইটে (www.xiclassadmission.gov.bd) ফল প্রকাশের কথা ছিল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে ফল প্রকাশে ব্যর্থ হয়ে কর্তৃপক্ষ শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় ফল প্রকাশের কথা জানায় একই ওয়েবসাইটে।

পরে দ্বিতীয় দফায়ও ফল প্রকাশ করতে না পেরে একই ওয়েবসাইটে শুক্রবার রাত সোয়া ১২টার দিকে জানানো হয়, শনিবার সকাল ৮টায় ফলাফল প্রকাশ করা হবে৷ কিন্তু এ সময়েও ফলাফল প্রকাশ করতে পারেনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির নীতিমালা অনুযায়ী, এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম মেধা তালিকা ২৫ জুন প্রকাশ করা হবে। এ ফলের ভিত্তিতে ২৭ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত প্রত্যেক মনোনীত শিক্ষার্থীকে নির্ধারিত কলেজে ভর্তি হতে হবে। যারা এই সময়ের মধ্যে ভর্তি হতে পারবেন না তাদের পরে বিলম্ব ফি দিয়ে ভর্তি হতে হবে।

এ ছাড়া কলেজে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে মাইগ্রেশনসহ ২ জুলাই দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে। তাদের ৪ জুলাইয়ের মধ্যে যার যার মনোনীত কলেজে ভর্তি হতে হবে। বিলম্ব ফিসহ ৫ জুলাইয়ের মধ্যে ভর্তি হতে হবে। আর যে সব শিক্ষার্থী অনলাইনে আবেদন করেনি তারা ৯ থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ পাবে। তাদের ফল প্রকাশ করা হবে ১২ জুলাই।

২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের জন্য এবারই প্রথম অনলাইনে ও মুঠোফোনে স্মার্ট সিস্টেমে ভর্তি আবেদন করেছেন শিক্ষার্থীরা। ৬ থেকে ২১ জুন পর্যন্ত ভর্তিচ্ছুরা আবেদন করে। তবে ভর্তি আবেদনের শুরুতেই এ পদ্ধতিতে জটিলতার কারণে অনেক শিক্ষার্থী এবং অভিভাবক ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে অভিযোগ করেছিলেন।

এ বছর মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ ১২ লাখ ৮২ হাজার ৬১৮ জন শিক্ষার্থী ছাড়াও ২০১৩ ও ২০১৪ সালের পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাও একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হতে পারবেন। ভর্তি প্রক্রিয়া শেষে আগামী ১ জুলাই থেকে একাদশ শ্রেণীর ক্লাস শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই