মেইন ম্যেনু

কল্যাণপুরে নিহত ৩ জঙ্গির অডিও প্রকাশ

গত মাসে রাজধানীর কল্যাণপুরে পুলিশের অভিযানে নিহত হয় ৯ জঙ্গি। তাদের দলের সদস্যরা সারা বাংলাদেশ জুড়ে সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা করেছিল। ২৬ জুলাই তারা নিহত হওয়ার আগে অডিও বিবৃতি দিয়েছিল। তিন জঙ্গির অডিও বিবৃতি তদন্তকারীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করেছে ইংরেজি দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউন।

অডিওতে তারা নিজেদের মতাদর্শ তুলে ধরেছে। খিলাফাতকে সমর্থন করার পেছনে তারা স্বর্গে যাওয়ার এমমাত্র পথ বলে মনে করেন। নিচে শাহজাদ রউফ অর্ক, আবু রিহান ও তাজুল হক রাশিকের অডিও বিবৃতি উপস্থাপন করা হলো-

শাহজাদ রউফ অর্ক:
আমি শাহজাদ রউফ অর্ক। আমি আমার এই বাণীটি জানাতে চাই আমার পরিবারের তৌহিদ রফউসহ অন্য সদস্যদের যারা আল্লাহকে সমর্থন করে শেখ হাসিনাকে সমর্থন করেন। যার ক্ষমতা সীমাবদ্ধ। যারা আল্লাহর শরীয়াহ আইন মেনে চলে না তাদের প্রতিও। যদি তোমরা আল্লাহর আইন মেনে চলো তবে স্বর্গে যেতে পারবে। এইটি স্বর্গে যাওয়ার একমাত্র পথ।

আমরা কি আল্লাহর পথ অনুসরণ করে কাজ করছি। আমরা যা করছি তা কি সঠিক। আমরা এখানে আছি। আমি পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছি। আমাদের সবকিছুৃ. সবকিছু আছে। আল্লার পথে যুদ্ধ করার জন্য আমরা প্রস্তুত। আমরা মেরে বা মরে স্বর্গে যাবো। জিহাদ ফি সাবিলিল্লাহর জন্য প্রস্তুত। এই পথ সম্পূর্ণ আল্লাহর ও শরীয়ার পথ। এটি আল্লাহর জন্য লড়াই করার পথ। আমরা এখানের সবকিছু সম্পর্কে জানতে সক্ষম হয়েছি। আমরা যা করছি তা সঠিক।

তোমরা যারা শেখ হাসিনাকে সমর্থন কর তারা মুরতাদ আর যারা গণতন্ত্রকে সমর্থন কর তারা শিরক করছো। তাই আমি আমার পরিবারের সব সদস্যকে মুরতাদ ও নাস্তিক বলতে পেরে খুশি। তোমরা নিজেদের নিরাপদে রেখে স্বর্গে যেতে পারো। আল্লাহু আকবর! ছোট গোষ্ঠীকে স্মরণ রেখো। অনেক মানুষের মধ্যে আমরা ছোট গোষ্ঠী। আমরা বিজয় অর্জন করবো।

যা চলছে তা সঠিকভাবে চলছে। আমাদের ছোট গ্রুপ নুসরাহ ফ্রন্টের সমর্থন পাচ্ছে। আমরা তোমাদের পরাজিত করবো। দ্বন্দ্ব শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা তোমাদের সঙ্গে লড়াই করবো। আমরা ইনশাল্লাহ এখন থেকেই তোমাদের সঙ্গে অস্ত্র নিয়ে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত। পুলিশ, র‌্যাবসহ অন্য যে কোনো মুরতাদ বাহিনী যে কোনো সময় এখানে আসতে পারে। আমরা তাদের হত্যা করতে প্রস্তুত। তাদের হত্যা করে আমরা জান্নাতে যাবো। ফি সাবিল্লিল্লাহ।

আবু রিহান:
আমি আবু রিহান। তোমরা খিলাফাতের সঙ্গে থাকো ও সমর্থন কর। খিলাফাতের সঙ্গে থেকে নিজের জীবনকে উৎসর্গ কর। খিলাফাতের সঙ্গে থাকো। নিশ্চয় খিলাফাত পূর্ব থেকে পশ্চিমে জয়লাভ করবে। তোমরা অবশ্যই সঠিক পথে থাকবে।

আমি আমাদের খলিফা আবু বক্কর আল বাগদাদীকে বলছি। আমি বিশ্বাসীদের রেখে অবিশ্বাসীদের উপড়ে ফেলার সুপারিশ করছি। আমি আমার বাবা মাকে সঠিক পথে আসার আহবান করছি। নিশ্চয়ই এটি তোমাদের জন্য শুভ কামনা। আমাদের যদি বলা হয় সম্পদ না হেদায়েত কোনটি চাও আমরা অবশ্যই হেদায়েতকে বেছে নেব। ইসলামের সঠিক পথে আসুন।

তাজুল হক রাশিক:
আমি বিশ্বের সকল মুসলমানের বলছি। যারা এখনো খিলাফাতের বাইয়াত গ্রহণ করেনি। তোমরা কেন পিছিয়ে আছো? কাফির, মুরতাদিন ও মুনাফিকরা সংঘটিত হয়ে খিলাফাতের বিরুদ্ধে লড়ছে। তোমরা কেন দেখতে পাচ্ছ না কাফিররা তাদের কর্তৃত্ব দেখাতে চাচ্ছে। আর খিলাফাত নিজেদের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে চাচ্ছে। মিথ্যাকে পরিহার করে সবাই চলো খিলাফাতে বাইয়াত গ্রহণ করি।

কাফিরদের বলছি এটি কেবল শুরু। আমরা পুরো বিশ্বকে পরিবর্তন করে দেবো। আমরা বিশ্বকে জয় করবো। আমি আমাদের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। ধীরে ধীরে আমাদের পরিধি বাড়ছে। এটি কেবল শুরু। আমি তোমাদের ভাই তাজুল ইসলাম।

এখন পর্যন্ত স্বঘোষিত আবু রিহানের পরিচয় রহস্যজনক রয়েছে। তার সঠিক পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। এখনো তার পরিচয় নিয়ে কেউ এগিয়ে আসেনি।

তদন্ত কর্মকর্তারা জানান, আত্মঘাতী দলের ৫ জঙ্গিদের মধ্যে রাশিক ও অর্ক ছিল। পুলিশ বলছে দেশে নাশকতা চালাতে তারা বিশাল পরিকল্পনা করছিল। বিশেষ করে বিদেশিদের টার্গেট করে হত্যার পরিকল্পনা করছিলেন। ১ জুলাই গুলশান হামলার সঙ্গে এই চক্রের সদস্যরা রয়েছে।

তাদের বক্তব্য অনেকটা আরবি থেকে অনূদিত। ঢাকা ট্রিবিউন এই বক্তব্যের সমর্থন করে না বা তাদের গুরুত্বও দিচ্ছে না। সূত্র: ঢাকা ট্রিবিউন






মন্তব্য চালু নেই