মেইন ম্যেনু

কানাইঘাটে দুইপক্ষের সংঘর্ষে ইউপি সদস্য নিহত

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে এক ইউপি সদস্য নিহত হয়েছেন। দুদু মিয়া নামক ওই ব্যক্তি কানাইঘাটের লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আরো ২০ জন আহত হয়েছেন।

নিহত দুদু মিয়া ওই ইউনিয়নের কুওরঘড়ি লামার গ্রামের মৃত তফজ্জুল আলীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কানাইঘাটের লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের কুওরঘড়ি লামার গ্রামের সাবাব উদ্দিনকে ইভটিজিংয়ের অভিযোগে গতকাল বৃহস্পতিবার ৩ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাবাব উদ্দিন ওই গ্রামের রাকিব আলীর ভাতিজা। রাকিব আলীর অভিযোগ, দুদু মিয়ার প্ররোচনায় সাবাব উদ্দিনকে শাস্তি পেতে হয়েছে।

এর জেরে শুক্রবার জুমার নামাজের পর কুওরঘড়ি লামার গ্রামে সালিশ বসে। সালিশে দুদু মিয়া ও রাকিব আলীর মধ্যে বাগবিত-া হয়। বাগবিত-ার একপর্যায়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে গুরুতর আহত হন দুদু মিয়া। তাকে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত ২০ জনের মধ্যে তিনজনকে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং বাকি ১৭ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, জুমার নামাজ শেষে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে দুদু মিয়া নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো ২০ জন আহত হয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই