মেইন ম্যেনু

কানের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর : কটন বাড

কয়েক বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের এক ভদ্রমহিলা প্রচণ্ড কানের ব্যথা নিয়ে চিকিৎসকের কাছে যান। ভদ্র মহিলার ব্যথা ছিল ভয়ানক এবং সেটা কিছুতেই যাচ্ছিল না। চিকিৎসক কান ভালোভাবে দেখে তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, ‘আপনি কি কটন বাড ব্যবহার করেন?’ ভদ্রমহিলা উত্তরে ‘হ্যাঁ’ বলেন। চিকিৎসক জানান, ভদ্রমহিলার কানে সংক্রমণ হয়েছে। আর সেটা হওয়ার কারণ নিয়মিত কটন বাডের ব্যবহার।

কানের ময়লা বা ওয়াক্স পরিষ্কারের জন্য অনেকেই কটন বাড ব্যবহার করেন। তবে এতে সাময়িক স্বস্তিবোধ হলেও উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হয়।

ইনডিপেনডেন্ট ও স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট হেলথ ডট কম প্রকাশ করেছে এই সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

ওয়াশিংটনের মাথা ও ঘাড় বিশেষজ্ঞ ফিটস জেরেল্ড বলেন, ‘কটন বাড ব্যবহারজনিত কানের সমস্যা নিয়ে প্রতিদিনই প্রায় অনেক রোগী আমাদের কাছে আসে।’

জেরেল্ড আরো বলেন, ‘কানের ময়লা পরিষ্কার করতে হয় এটা ভেবে মানুষ কটন বাড ব্যবহার করে। তবে কানের ময়লা এমনিতেই পরিষ্কার হয়ে যায়। বিশেষ কারণ ছাড়া আলাদাভাবে পরিষ্কার করার কোনো প্রয়োজন পড়ে না। প্রাকৃতিকভাবেই কানের ময়লা বেরিয়ে আসে।’

কটনবাড ব্যবহারের কারণে বাইরের ময়লা পরিষ্কার হলেও ভেতরের ময়লা আরো বেশি ভেতরে প্রবেশ করে। আর এতে শ্রবণশক্তি নষ্ট হয়ে যেতে পারে জানিয়ে জেরেল্ড বলেন, ‘এতে মধ্যকর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।’

ম্যানহেটনের নিউইয়র্ক ওটোলজির পরিচালক ও এমডি সুজানা চন্দ্রশেখর জানান, ‘কটন বাড ব্যবহারে লাভের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হয়। এটি দীর্ঘমেয়াদি কানের ক্ষতি করে। এটি ব্যবহারের কারণে কানে সংক্রমণসহ ব্রণ, অস্বত্বি হতে পারে। এ ছাড়া ফাঙ্গাস সংক্রমণও হয় দীর্ঘমেয়াদি ব্যবহার করলে।’

তাই কান পরিষ্কারে কটন বাডের কোনো প্রয়োজন নেই জানিয়ে দ্রুত এটি ব্যবহার বন্ধ করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।






মন্তব্য চালু নেই