মেইন ম্যেনু

কাল জামায়াতের ইফতার, থাকছেন খালেদা

রাজনীতিক ও পেশাজীবীদের সন্মানে আগামীকাল বৃহস্পতিবার জামায়াতে ইসলামীর ইফতার পার্টি। রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে এটি অনুষ্ঠিত হবে।

সরকার বিরোধী আন্দোলনে সফলতা-ব্যর্থতা নিয়ে জামায়াতের সঙ্গে বিএনপির টানাপোড়েন সত্ত্বেও বরাবরের মতো শরিকদলের এই ইফতার পার্টিতে জোটনেত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ জোটের শীর্ষ নেতারা যোগ দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

জামায়াত সূত্র জানান, সরকারের কঠোর মনোভাব ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নজরদারি সত্ত্বেও দলটি গোপনীয়তা রক্ষা করে এবারও হোটেল সোনারগাঁওয়ে রাজনীতিকসহ পেশাজীবীদের সম্মানে ব্যয়বহুল ইফতার পার্টির আয়োজন করেছে। এর আগে গত সোমবার রাজধানীর একটি হোটেলে অনেকটা গোপনে কূটনীতিকদের সঙ্গে ইফতারে মিলিত হন দলটির নেতারা।

বৃহস্পতিবার জামায়াতের ইফতার পার্টিতে এবারও প্রধান অতিথি থাকছেন তাদের জোটনেত্রী খালেদা জিয়া। ইতিমধ্যে জামায়াতের পক্ষ থেকে বিএনপি চেয়ারপারসনসহ দলটির প্রায় ২০ শীর্ষ পর্যায়ের নেতাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। দাওয়াত কার্ড পাঠানো হয়েছে জোটের শরিক দল জাতীয় পার্টি (জাফর), কল্যাণ পার্টিসহ দলগুলোর শীর্ষনেতাদের কাছেও।

ইফতার পার্টির মধ্য দিয়ে দলটি তাদের আত্মগোপনে থাকা নেতা-কর্মীদের সংগঠিত করার পাশাপাশি মনোবল চাঙ্গা করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের শীর্ষনেতাদের বিচার শুরু করলে বড় ধরণের বিপর্যয়ে পড়ে জামায়াতে ইসলামী। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে সরকারের বিচার প্রক্রিয়ার এক পর্যায়ে দলটির নেতা-কর্মীরা হুমকি দিয়ে নানাভাবে বিচার বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা চালান। তারা সরকার বিরোধী আন্দোলনের নামে দেশে সহিংসতা সৃষ্টির পাশাপাশি নাশকতা চালায়। কিন্তু তারপরও বিচার প্রক্রিয়া এগিয়ে নেয় সরকার।

১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে মানবতা বিরোধী অপরাধের অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায়ে দোষী হয়ে জামায়াতের শীর্ষস্থানীয় দুই নেতাকে ইতিমধ্যে ফাঁসিতে ঝুলানো হয়েছে। কয়েকজনের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডাদেশের রায় কার্যকরের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

এছাড়া আদালত অবমাননাসহ একাধিক মামলায় দলটির ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমাদ, ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ডা. সফিকুর রহমান, মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, এইচ এম হামিদুর রহমান আযাদসহ অধিকাংশ শীর্ষ পর্যায়ের নেতা পলাতক রয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই