মেইন ম্যেনু

কাশিমপুরে মীর কাসেম আলীর সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ

মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর সঙ্গে কাশিমপুর কারাগারে দেখা করেছেন তার পরিবারের স্বজনরা।

শনিবার দুপুর পৌনে ১টায় দিকে জেল কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে পরিবারের ৯ জন সদস্য মীর কাসেম আলীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

দেখা করেছেন যারা- মীর কাসেম আলীর স্ত্রী খন্দকার আয়েশা খাতুন, ছেলে মীর আহমেদ বিন কাসেম, পুত্রবধূ সায়েদা ফাহমিদা আক্তার ও তাহমিনা আক্তার, মেয়ে তাহেরা তাসমিম, ভাগ্নে রুমান পারভেজ ও আব্দুল আল মাহাদী, ভাতিজা কেএম রশিদ উদ্দিন এবং শুভ মজুমদার।

কাশিমপুর কারাগারের জেলার নাশির আহমেদ বলেন, শনিবার দুপুরে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর পরিবারের ৯ জন সদস্য তার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে আসেন। পরে দুপুর পৌনে ১টার দিকে তাদের সাক্ষাতের অনুমতি দেয়া হয়।

মীর কাসেম আলী কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের ফাঁসির কনডেম সেলে বন্দি। এর আগে গ্রেফতারের পর ২০১২ সাল থেকে তিনি এ কারাগারে রয়েছেন। ২০১৪ সালের আগে তিনি এ কারাগারে হাজতবাসকালে ডিভিশনপ্রাপ্ত বন্দির মর্যাদায় ছিলেন। পরে দণ্ডপ্রাপ্তির পর তাকে ফাঁসির কনডেম সেলে পাঠানো হয়।

গত ৮ মার্চ আদালত মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায় বহালের আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট বিচারকদের স্বাক্ষরের পর ৬ জুন রাত পৌনে ৮টার দিকে তা প্রথমে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে এবং পরে মধ্যরাতে ওই পরোয়ানা কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছে। ৭ জুন সকালে কারাগারের ফাঁসির সেলে তাকে মৃত্যু পরোয়ানা পড়ে শুনানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই