মেইন ম্যেনু

কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যু নিয়ে গুজব

বাংলা চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যুর খবর নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন ওয়েব পোর্টাল ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে। এ কারণে তৈরি হচ্ছে নানা বিভ্রান্তি। যেমন রাজ্জাক আর নেই ভেবে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ শোক প্রকাশ করে গণমাধ্যমে বিবৃতি দেয়। পরে আবার তা ফিরিয়েও নেয়া হয়।

নায়করাজের ছোট ছেলে সম্রাট বলেন, ‘সারারাত ঘুমাতে পারিনি, একটু পরপর মানুষ ফোন করে প্রশ্ন করেছেন- আব্বা বেঁচে আছেন কি না। এর মানে কি? তেমন কিছু হলে আমরাই তো সবাইকে জানাতাম। সকালে উঠে একটি অনলাইনে দেখলাম আব্বা মারা গেছেন। দেশের বাইরে থেকে আমাকে ফোন করে সমবেদনা জানাচ্ছিলেন অনেকে। তারা তো এটা জানে না খবরটা গুজব।’

যেসব সংবাদ মাধ্যম দায়িত্বহীন সংবাদ পরিবেশন করছে তাদের উদ্দেশ্যে সম্রাট বলেন, ‘কিছুই না জেনে যারা নিউজ করছে, এরা কারা? একটা খবর প্রচার নিয়ে তাদের কোনো দায় নেই। এমন কিছু সংবাদ মাধ্যমের জন্য আমাদের পুরো সংবাদ মাধ্যম আজ বিশ্বের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। এদের চিহ্নিত করা উচিত। আর ফেসবুকে যাঁরা স্টেটাস দিয়েছেন, আপনারা দয়া করে ভুল খবর ছড়াবেন না। দেখুন আমরাও মানুষ, আমাদের একটা পরিবার আছে, সেই পরিবারের কর্তাকে নিয়ে এসব খবর বেরুচ্ছে এটা একটা পরিবারের জন্য দুঃখ্জনক। আমরা সবার সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করি।’

এই বিষয়ে নায়ক ফেরদৌস বলেন, ‘এই ধরনের অসুখে তিনি এর আগেও আক্রান্ত হয়েছেন। আবার সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন। কিছুদিন আগেও তিনি শুটিং করেছেন। রাজ্জাক ভাইতো চলচ্চিত্র থেকে দূরে নেই। কিছুদিন আগেও উনার একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। এখন একটি ছবির পান্ডুলিপি নিয়ে কাজ করছেন, এমন নয় যে তিনি কোনো কাজ করতে পারেন না। সবাই দোয়া করবেন, তিনি যেন খুব তাড়াতাড়ি কাজে ফিরতে পারেন।’

নায়করাজ রাজ্জাকের শারীরিক অবস্থার খবর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সার্বক্ষণিকভাবেই সংবাদ মাধ্যমকর্মীদের অবহিত করছে। তাই তাঁকে নিয়ে কোনো ধরনের বানোয়াট কথা না ছড়ানোর অনুরোধ জানানো হয় রাজ্জাকের পরিবারের পক্ষ থেকে।






মন্তব্য চালু নেই