মেইন ম্যেনু

কিংবদন্তি শিল্পী ওস্তাদ ফতেহ আলী খান আর নেই

শাস্ত্রীয় সংগীতের কিংবদন্তি শিল্পী ওস্তাদ ফতেহ আলী খান আর বেঁচে নেই। গত বুধবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মৃৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

জানা গেছে, গত দশদিন ধরে ফুসফুস জনিত অসুখের কারণে তিনি পাকিস্তানের হাসপাতালে চিকিৎসাধিন ছিলেন। তার ভাতিজা শিল্পী শাফাকাত আমানত আলী সংবাদ মাধ্যমকে জানায়, তিনি ইসলামাবাদের হাসপাতালেই শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেছেন।

টুইটারে শাফাকত আমানত আলী লিখেছেন, ‘আজ ওস্তাদ ফতেহ আলি খান সাহেবের মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে পাতিয়ালা ঘরানার একটা যুগের অবসান হয়ে গেল। বলা হয়ে থাকে শাস্ত্রীয় সংগীতের যেকোনো আলোচনায় ওস্তাদ ফতেহ আলী খানের নাম না আসাটাই অপরাধ। একটি ঠুংরির কথা তুললেই সবাই আপন মনে গুনগুন করে- ‘মোরা পিয়া মোসে বোলে না…’।’

শাস্ত্রীয় সংগীতের মুকুটহীন সম্রাট হিসেবে পরিচিত ওস্তাদ ফতেহ আলী খান। ১৯৩৫ সালে অবিভক্ত ভারতের পাতিয়ালায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। মাত্র ১২ বছর বয়সেই পাতিয়ালার মহারাজার দরবারের গায়ক হিসেবে নির্বাচিত হন। বড়ভাই আমানত আলী খানও একই সঙ্গে ১৪ বছর বয়সেই পাতিয়ালার মহারাজার সভা গায়কের চাকরি পান।

পাতিয়ালার মহরাজের বড় প্রিয় ছিলেন দুই ভাই। পাকিস্তান তো বটেই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রেও একাধিক পুরস্কার পেয়েছেন ফতেহ আলী খান।






মন্তব্য চালু নেই