মেইন ম্যেনু

কিডনিতে পাথর হয় কেন?

প্রশ্ন : কিডনিতে পাথর হয় কেন এবং এ বিষয়ে কারা বেশি ঝুঁকিপ্রবণ?

উত্তর : পাথর কিডনিতে হয়, পিত্তথলিতে হয়। কিডনি, মূত্রনালির, মূত্রথলির পাথরের অনেক কারণ আছে। এর মধ্যে একটি কারণ হলো ভিটামিন ‘এ’-র অভাব। এটা বাচ্চাদের বেলায় পাথর হওয়ার অন্যতম কারণ। আরো কারণ যেমন একটি রোগী অনেকক্ষণ শুয়ে আছে। শুয়ে থাকলে শরীরে ক্যালসিয়াম মোবিলাইজেশন হয়, তখন পাথর হয়। যাদের ফ্রাকচার হয়, পেরাপ্লেজার রোগী থাকে, তাদের হয়।

আমাদের প্রস্রাবের মধ্যে যে উপাদানগুলো আছে, এগুলো যদি একটু ওলটপালট হয়, তাহলে পাথর হওয়ার আশঙ্কা থাকে। আবার কোনো কারণে যদি দেখা যায় প্রস্রাব মূত্রথলি থেকে বের হতে পারছে না, অনেক দিন পর্যন্ত। তখনো পাথর হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

আবার একটা সমস্যা রয়েছে যেটাকে আমরা বলে থাকি হাইপার প্যারাথাইরয়েডিজম। প্যারাথাইরয়েড গ্রন্থিতে যদি কোনো সমস্যা থাকে, এর থেকেও পাথর হয়। সমস্যা প্যারাথাইরয়েডের, কিন্তু পাথর হবে কিডনিতে।

প্রশ্ন : একটি বিশেষ বয়সের পর এটা হয় এ রকম কি কোনো বিষয় আছে?

উত্তর : একেকটি কারণ একেক বয়সে প্রভাব ফেলে। যেমন আমি বললাম, ভিটামিন ‘এ’-র অভাব। এটা বাচ্চাদের বেলায় বেশি হবে। যেটা শুয়ে থাকার সমস্যা, এটা সাধারণত হতে পারে। তবে একেক বয়সে একেক কারণে সমস্যা হয়।






মন্তব্য চালু নেই