মেইন ম্যেনু

কিডনির ক্ষতি করে যে পাঁচ অভ্যাস

শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলোর মধ্যে কিডনি অন্যতম। এটি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থকে ছেকে বের করে দেয়। কিছু অভ্যাস রয়েছে যেগুলো কিডনিকে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে।
কিডনির ক্ষতি করে এমন পাঁচটি অভ্যাসের কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি।

১. প্রস্রাব ঠিকমতো না করা
প্রস্রাব ঠিকমতো না করা কিডনি ক্ষতির অন্যতম কারণ। প্রস্রাব ব্লাডারের ভেতর দীর্ঘ সময় থাকলে, ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন হয়। এতে ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন ও কিডনির সংক্রমণ হয়। এ ছাড়া প্রস্রাব আটকে রাখলে কিডনির ওপর চাপ পড়ে। এতে কিডনি অকার্যকর হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

২. পর্যাপ্ত পানি পান না করা
পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান না করলে কিডনির ক্ষতি হতে পারে। কিডনির প্রধান কাজ শরীরে দূষিত পদার্থগুলো ছেঁকে বের করে দেওয়া এবং ইলেকট্রোলইট তৈরি নিয়ন্ত্রণ করা।পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান না করলে এই দূষিত পদার্থগুলো বের হতে অসুবিধা হয়। এতে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।বিশেষজ্ঞরা বলেন, একজন সুস্থ মানুষের দিনে ১০ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করা প্রয়োজন।

৩. বেশি লবণ খাওয়া
নিয়মিত বেশি লবণ খাওয়া কিডনির ক্ষতি করে। বেশি লবণ খেলে কিডনির কার্যক্ষমতা কমে যায়, এতে কিডনির রোগ হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

৪. উচ্চ প্রোটিন যুক্ত খাবার
প্রোটিন শরীরের জন্য ভালো। তবে অতিরিক্ত লাল মাংস (গরু, খাসি) অথবা অন্যান্য প্রোটিন জাতীয় খাবার খাওয়া কিডনির রোগ হওয়ার ঝুঁকি বাড়ায়। তাই স্বল্প পরিমাণ প্রোটিন জাতীয় খাবার খাওয়ার কিডনির জন্য ভালো।

৫. মদ্যপান করা
অতিরিক্ত মদ্যপানও কিডনির ক্ষতি করে। মদ্যপান কিডনির ওপর চাপ ফেলে। এতে কিডনি অকার্যকর হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। মদ্যপান কিডনির স্বাভাবিক কার্যক্রমকে ব্যাহত করে। তাই কিডনি সুস্থ রাখতে মদ্যপান এড়িয়ে চলুন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই